ফেডেরার, জোকোভিচ, ওয়ারিঙ্কাদের পতনের পর ফ্লাশিং মিডোয় রাফায়েল নাদালই ছিলেন একমাত্র তারকা। যুক্তরাষ্ট্র ওপেনের সেমিফাইনাল যদিও কোনও অঘটনের সাক্ষী থাকল না। বরং চ্যাম্পিয়নের মতই প্রতিপক্ষকে স্ট্রেট সেটে উড়িয়ে ফাইনালে পৌছে গেলেন নাদাল। ইতালির বেরেত্তিনি প্রথম সেটে কিছুটা প্রতিরোধ গড়ে তুলতে পেরেছিলনে। সেই সেটে তুল্যমূল্য লড়াই হয়, তবে টাইব্রেকার প্রথম সেট জিতে নেন রাফা। বাকি দুটো সেটে ইতালির খেলোড়ায় আর দাঁড়াতে পারেননি ক্লে কোর্টের রাজার বিরুদ্ধে। ৬-৪, ৬-৩’এ দ্বিতীয় ও তৃতীয় সেট জিতে নেন নাদাল। ইতালির প্রতিপক্ষকে হারিয়ে ২৭ তম গ্র্যন্ড স্ল্যামের ফাইনালে পৌছালেন ৩৩ বছরের রাফা। 

অন্য সেমিফাইনালে দিমিত্রভকে হারিয়ে প্রথবার গ্র্যান্ড স্ল্যামের ফাইনালে পৌছালেন মেদভেদেভ। গত কয়েক সপ্তাহে দুরন্ত পারফরম্যান্স করেছেন মেদভেদেভ। ওয়াশিংটন ও কানাডায় রানার্স হওয়ার পর সিটসিনাটিতে চ্যাম্পিয়ন হয়েছিলেন মেদভেদেভ। যুক্তরাষ্ট্র ওপেনেও দুরন্ত ফর্মের ঝলক দেখিয়ে ফাইনালে পৌছে গেছেন পঞ্চম বাছাই এই খেলোয়াড়। সাফিনের পর দ্বিতীয় রাশিয়ান পুরুষ টেনিস খেলোয়াড় হিসেবে গ্র্যান্ডস্ল্যামের ফাইনালে পৌছালেন মেদভেদেভ। 

যুক্তরাষ্ট্র ওপেনের ফাইনালের আগে মাত্র একবারই দেখা হয়েছে নাদাল ও মেদভেদেভের। গতমাসেই মন্তেরিয়ালে দেখা হয়েছিল দুই খেলোয়াড়ের। অভিজ্ঞতায় নাদালের কাছে নেই মেদভেদেভ, কিন্তু রাশিয়ান এই প্রতিপক্ষকে একেবারেই হালকা ভাবে নিতে চান না নাদাল। রাফার মতে কেরিয়ারের চতুর্থ ইউএস ওপেন খেতাব জিতে নিতে রবিবার  নিজের সেরাটা উজাড় করে দিতে হবে।  প্রতি সপ্তাহে উন্নতি করছে মেদভেদেভ। ফাইনালের প্রতিপক্ষকে নিয়ে বললেন নাদাল। অন্যদিকে প্রথমবার কোনও গ্র্যান্ড স্ল্যামের ফাইনালে পৌছে  খুশি মেদভেদেভ বলছেন, মার্কিন মুলুকে আসার আগে তিনি ভাবেননি এতটা ভাল পারফর্ম করতে পারবেন তিনি। তাই ফাইনালের দিনটা নিজের ওপর বাড়তি চাপ না নিয়ে, ফাইনালটা উপভোগ করতে চান  রাশিয়ান টেনিসর নতুন তারকা।