প্রথম ম্যাচে মহামেডানের বিরুদ্ধে মিনি ডার্বিতে দুরন্ত জয় এসেছিল। কিন্তু দ্বিতীয় ম্যাচেই মুখ থুবড়ে পড়ল কিবু ভিকুনার বাগান। পিয়ারলেসের কাছে তিন গোল খেয়ে গো ব্যাক ধ্বনি শুনতে হল বাগানের স্প্যানিশ কোচকে। কলকাতা লিগের ইতিহাসে প্রথম বার প্রথম ম্যাচেই তিন গোল হজম করতে হল বাগানকে। 

কলকাতা লিগের শুরুতেই সবুজ মেরুনকে জোর ধাক্কা দিলেন মোহনবাগানেরই প্রাক্তন ফুটবলার আনসুমানা ক্রোমা। দুই অর্ধে দু'টি গোল করে মোহনবাগান মাঠ থেকে তিন পয়েন্ট নিয়ে গেলেন তিনি। পিয়ারলেসের অন্য গোলটি করেন লক্ষ্মীকান্ত মান্ডি। 

কলকাতায় প্রথমবার মাঠে নেমেই মহামেডানের বিরুদ্ধে জোড়া  গোল করে সমর্থকদের আশার আলো দেখিয়েছিলেন স্প্যানিশ স্ট্রাইকার সালভা চামোরো। মিনি ডার্বিতে গোলের নীচে অপ্রতিরোধ্য ছিলেন শিল্টন পালও। কিন্তু এ দিন দু' জনেই ডোবালেন দলকে। গোটা ম্যাচে স্প্যানিশ স্ট্রাইকারের হেড একবার পোস্টে লেগে ফিরে আসে। বাকি সময়টুকু পিয়ারলেস ডিফেন্সকে সেভাবে সমস্যায় ফেলতে পারেননি তিনি। উল্টে ম্যাচের শেষ মুহূর্তে পেনাল্টিও মিস করেন এই বিদেশি স্ট্রাইকার। যা বাগান সমর্থকদের হতাশা আরও বাড়িয়ে দেয়। 

অন্য দিকে শিল্টনের ভুলে তৃতীয় গোল খেতে হয় বাগান শিবিরকে। সবমিলিয়ে গত বছরের মতো এবারও কলকাতা লিগে পিয়ারলেস কাঁটায় বিদ্ধ হতে হল বাগানকে। পুরনো দলের বিরুদ্ধে খেলতে নেমেই আরও একবার জ্বলে উঠলেন ক্রোমা।