Asianet News BanglaAsianet News Bangla

অলিম্পিকে দর্শক শূন্য টোকিও, করোনা আতঙ্কে জারি জরুরি অবস্থা

  • দর্শকদের উপস্থিতি থাকবে না 
  • টিকিও কোনও ইভেন্টে থাকবে দর্শক 
  • আগের সিদ্ধান্ত থেকে সরে এল প্রশাসন 
  • জাপানে বাড়ছে করোনা আক্রান্তের সংখ্যা 
Tokyo bans fans from all Olympic events in Japan due to covid 19 bsm
Author
Kolkata, First Published Jul 9, 2021, 10:55 AM IST
  • Facebook
  • Twitter
  • Whatsapp

দর্শক শূন্য মাঠেই অনুষ্ঠিত হবে টোকিও অলিম্পিকের সমস্ত ইভেন্ট। করোনাভাইরাসের আতঙ্কের জন্য টোকিওতে জারি থাকবে জরুরি অবস্থা।  প্রায় নিশ্চিত করে দিলেন জাপানের মন্ত্রী অমায়ো মারুকাওয়া। তিনি জানিয়েছেন টোকিওর সমস্ত অলিম্পিক স্থান থেকে ভক্তদের নিষিদ্ধ করা হবে। আর্থাৎ জাপানের রাজধানী টোকিও  কোনও ইভেন্টেই  দর্শকই থাকতে পারবেন না। 

জঙ্গি দমনে কড়া যৌথ বাহিনী, রাত থেকেই জম্মু ও কাশ্মীরের কুলগামে এনকাউন্টার

প্রথম দিকে আয়োজকরা ১০ হাজার দর্শক বা মাঠের মোট দর্শকের ৫০ শতাংশ আসনে দর্শকের উপস্থিতিতে ইভেন্টগুলি আয়োজন করবে ঠিক করেছিলেন। কিন্তু তখনও আয়োজকদের ধারনা ছিল না অলিম্পিকের সময়ও টোকিওতে জরুরি অবস্থা জারি থাকবে। কিন্তু এদিনের ঘোষণার পরেই আয়োজকরা সম্পূর্ণ ইউটার্ন নিয়েছেন।

ভারতের পথে এবার চিন, সেনা বাহিনীতে নিয়োগ আর প্রশিক্ষণ তিব্বতের তরুণদের

টোকিওতে কোভিড ১৯ এর সংক্রামণের এক নতুন মাত্রার মধ্যেই আন্তর্জাতিক অলিম্পিক কমিটির সভাপরি টমাস বাখ শহরে এসে পৌঁছেছেন। আর সেই দিনেই এই ঘাষণা রীতিমত উদ্বেগ বাড়িয়েছে অলিম্পিক কমিটির। আগামী ২৩ জুলাই থেকে শুরু হবে টোকিও অলিম্পিক। শেষ হবে ৮ অগাস্ট। গত বছরই অলিম্পিক অনুষ্ঠিত হওয়ার কথা ছিল। কিন্তু কোভিড মহামারির জন্য তা পিছিয়ে দেওয়া হয়েছিল। অলিম্পিক সমাপ্তির দুই সপ্তাহ পরে অর্থাৎ প্যারালিম্পিক্সের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানের দুদিন আগে ২২ অগাস্ট টোকিওর জরুরি অবস্থা শেষ হবে বলেও ঘোষণা করা হয়েছে।

কোভ্যাক্সিন নিয়ে আশাবাদী WHOর বিজ্ঞানী সৌম্যা স্বামীনাথন, দেখুন কী কী বললেন তিনি

নতুন নীতিটি নিয়ে আইওসি, ইন্টারন্যাশানাল প্যারালিম্পিক্স কমিটিটি, টোকিও ২০২০, টোকিও মেট্রোপলিটান গর্ভমেন্ট ও জাপান সরকার  সহমত পোষণ করেছে। দর্শকদের মাঠে ঢোকার সময় ও নিয়ম নিয়ে পাঁচটি সংস্থা আগেই যৌথ বিবৃতি দিয়েছিল। অলিম্পিক গেমসে টোকিওর কোনও জায়গায় কোনও দর্শককে প্রবেশ করতে দেওয়া হবে না। কিন্তু যেসব জায়গায় জরুরি ব্যবস্থা কার্যকর হচ্ছে না সেখানে স্থানীয় সরকার দর্শকদের বিষয়ে সিদ্ধান্ত নিতে পারে। প্রয়োজনে দর্শকদের ঢোকার অনুমতি দিতে পারে। প্রয়োজনীয় ব্যবস্থাও গ্রহণ করতে পারে। 

টোকিও অলিম্পিকের প্রধান সিকো হিশিমোটো জানিয়েছেন, যাঁরা টিকিট কেটেছেন তাঁদের জন্য তিনি দুঃখিত। কারণ তাঁরা আর খেলা দেখতে পারছেন না। তিনি আরও বলছেন করোনাভাইরাসের কারণে খুবই সীমিতভাবে আয়োজন করা হচ্ছে টোকিও অলিম্পিক। তিনি আরও বলেছেন, শনিবার টিকিট নিয়ে যে লটারি পদ্ধতি ফলাফল ঘোষণা করা হয়েছিল তা বাতিল হয়ে যাবে।

Follow Us:
Download App:
  • android
  • ios