গুগল মিট এবং জুম অ্যাপের সঙ্গে সরাসরি প্রতিযোগিতায় নামল প্রযুক্তি সংস্থা মাইক্রোসফ্ট। এর আগে অবধি ভিডিও কনফারেন্সিং অ্যাপ মাইক্রোসফ্ট টিমে মাত্র  ১০০ জন অংশগ্রহণ করতে পারত। তবে বুধবার মাইক্রোসফ্ট-এর তরফ থেকে ঘোষনা করা হয় যে মাইক্রোসফ্টের এই অ্যাপে চলছে আপডেশন এর কাজ। আর তা শেষ হলেই ভিডিও কনফারেন্সিং অ্যাপ মাইক্রোসফ্ট টিমে আর ১০০ জন নয় একসঙ্গ ২৫০ জন অংশগ্রহণ করতে পারবেন।
আরও পড়ুন- ইএমআই স্থগিতের নাম করে ভুয়ো ফোন কল, ফাঁদে পা দিলে ফাঁকা ব্যাঙ্ক অ্যাকাউন্ট

লকডাউনের কারণে, ওয়ার্ক ফ্রম হোমে প্রচুর সংখ্যক মানুষ কাজ করছেন। পাশাপাশি অফিসের কার ছাড়াও চলছে স্কুল ও কলেজের পড়াশুনা। তাই এই পরিস্থিতিতে সারা বিশ্বে ভিডিও কনফারেন্সিং অ্যাপের চাহিদা ও ব্যবহার বৃদ্ধি পেয়েছে। সংস্থার তরফ থেকে বিশেষ এক বিবৃতিতে জানানো হয়েছে, বর্তমানে মাইক্রোসফ্ট টিমের ৭৫ কোটি ব্যবহারকারী রয়েছে। মাত্র কয়েক মাসের মধ্যেই তাদের গ্রাহকের সংখ্যা কয়েকগুণ বৃদ্ধি পেয়েছে। এই পরিস্থিতির কথা মাথায় রেখেই ব্যবহারকারীর সংখ্যা বৃদ্ধির কথা ভেবেছে মাইক্রোসফ্ট।

আরও পড়ুন- ক্রেডিট কার্ডের সাহায্যে লেনদেন করছেন, সাবধান হোন এখনই

তবে বিনামূল্যে এই অ্যাপে ভিডিও কনফারেন্সিং-এ মাত্র ২০ জনই ব্যবহার করতে পারবে। কেবলমাত্র পেইড গ্রাহকরা ২৫০ জন অংশগ্রহণকারীর সুবিধা পাবে। এই বিষয়ে মাইক্রোসফ্ট জানিয়েছে, এই মাসের মাঝামাঝি সময়ে নতুন এই আপডেটটি অ্যাক্টিভ হবে। এখনও এর আপডেশনের কাজ চলছে। সংস্থার-এর মতে, লকডাউন এর সময় দেখা গিয়েছে কম সংখ্যক ব্যবহারকারী থাকার ফলে একই বিষয় নিয়ে সংস্থার কোনও মিটিং একাধিক বারে সারতে হয়েছে।

বড় কোনও গ্রুপ নিয়ে কাজ করতে হলে যাতে আর কোনও সমস্যায় গ্রাহককে পরতে না হয়, তার জন্য়ই নেওয়া হয়েছে এই ব্যবস্থা। মাইক্রোসফ্টের এই নতুন এই ভার্সনে ১ টিবি এবং ফ্রি ভার্সনে ১ জিবি স্টোরেজ পাওয়া যাবে। এগুলি ছাড়াও, পেইড গ্রাহকরা শিডিউল মিটিং, অডিও কনফারেন্সিংয়ের সঙ্গে রেকর্ড মিটিং, ফোন কলের সুবিধাও পাবেন।