ঘটা করে বলা হচ্ছে না। কিন্তু, গোপনেই নভেল করোনাভাইরাস সংক্রমণের হাত থেকে বাঁচতে একটি টিকা তৈরি করে ফেলেছে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রর। মার্কিন প্রশাসনের একটি সূত্র দাবি করেছে সোমবার থেকেই এই টিকা-র পরীক্ষা করা শুরু হবে। সেই পরীক্ষা সফল হলে তবেই তা জনসমক্ষে আনা হবে।

আরও পড়ুন - আইসোলেশন ওয়ার্ড আদতে কি জেলখানা, বিচ্ছিন্ন জীবন নিয়ে মুখ খুললেন করোনা-জয়ী

ওই সসূত্র আরও জানিয়েছে এই টিকা তৈরি এবং তার পরীক্ষার যাবতীয় খরচ-খরচা বহন করছে আমেরিকার ন্যাশনাল হেল্থ ইনস্টিটিউট। সিয়াটেল-এর কায়সার পারমানেন্তে ওয়াশিংটন হেলথ রিসার্চ ইনস্টিটিউটে এই পরীক্ষা করা হবে। তবে টিকাটি পুরোপুরি বৈধতা পেতে পেতে এক থেকে দেড় বছর সময় লাগবে।

আরও পড়ুন - নির্ভয়াকাণ্ডের আসামিরাও কি কোভিড-১৯ আক্রান্ত, তিহার-এ নেওয়া হল বিশেষ ব্যবস্থা

এনআইএইচ-এর সহায়তায় মোদার্না ইনকর্পোরেশন এই টিকা তৈরি করেছে। সোমবার পরীক্ষার সময় ৪৫ জন তরুণ, স্বাস্থ্যবান স্বেচ্ছাসেবককে বিভিন্ন ডোজ-এ ওই টিকা দিয়ে দেখা হবে তার কোনও খারাপ পার্শ্ব প্রতিক্রিয়া আছে কিনা। বিশ্বজুড়েই বিভিন্ন গবেষণাগারে কোভিড-১৯'এর টিকা তৈরির প্রচেষ্টা চলছে। এমনকি অস্থায়ী টিকা অর্থাৎ যে ধরণের টিকাগুলি এক বা দুই মাসের জন্য মানুষকে সুরক্ষা দিতে পারে, সেইরকম টিকাও তৈরির চেষ্টা চলছে।

আরও পড়ুন - বন্ধ সব সেক্স ক্লাব, 'করোনা-আতঙ্কে' লম্বা লাইন গাঁজা-চরসের দোকানের বাইরে

বিশ্বব্যাপী আপাতত করোনাভাইরাস মহামারীর প্রকোপে ১৫৬,০০০ এরও বেশি মানুষ আক্রান্ত হয়েছেন ৫,৮০০ জনেরও বেশি লোকের মৃত্যু হয়েছে। ভারতেও আক্রান্তের সংখ্যা ১০০ ছাড়িয়ে গিয়েছে। দিন কয়েক আগে ভারতীয় গবেষণা সংস্থা আইসিএমআর-ও জানিয়েছিল করোনাভাইরাসের টিকা তৈরি করতে দেড় থেকে দুই বছর সময় লাগবে। চিনা গবেষকরাও সেরকমটাই জানিয়েছেন।