ফের নতুন রেকর্ড গড়ে বসল আমেরিকা। গত ২৪ ঘণ্টায় দেশটিতে  করোনা সংক্রমণের শিকার হয়ে মৃত্যু হল ২,৪০৭ জনের। যা একদিনে করোনা সংক্রমণে কোনও দেশের মৃতের সংখ্যা সর্বোচ্চ। এর সঙ্গেই আমেরিকায় মোট  মৃতের সংখ্যা পৌঁছে গেছে ২৬ হাজারে। আর আক্রান্তের সংখ্যা গোটা দেশটিতে ৬ লক্ষেরও বেশি। তবে মার্কিন মুলুক টালমাটাল হলেও কোনও পরিবর্তন হয়নি প্রেসিডেন্ট ট্রাম্পের স্বভাবে। হুমকির পর এবার সত্যিই বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা 'হু' কে দেওয়া আর্থিক অনুদান বন্ধ করে দিলেন ডোনাল্ড ট্রাম্প। 

 
বর্তমানে গোটা বিশ্বে করোনা আক্রান্তের সংখ্যা প্রায় ২০ লক্ষের গণ্ডি ছুঁয়ে ফেলেছে। কোভিড ১৯ যেভাবে আমেরিকা সহ গোটা বিশ্বে ছড়িয়ে পড়েছে তা নিয়ে রীতিমতো ক্ষোভপ্রকাশ করে মার্কিন প্রেসিডেন্ট আগেই কাঠগড়ায় তুলেছিলেন  হু-কে। তাঁর মতে,  বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা করোনা ভাইরাসের সংক্রমণ কীভাবে এতটা ছড়িয়ে পড়ল তা নিয়ে প্রকৃত সত্য সামনে আনছে না। আড়াল করে রাখা হচ্ছে চিনকে।  এর আগেও এই বিষয়ে একাধিকবার উষ্মা প্রকাশ করেন ডোনাল্ড ট্রাম্প। এবার সরাসরি বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার তহবিলে অনুদান দেওয়া বন্ধ করে দিলেন তিনি। মঙ্গলবার মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প ঘোষণা করেছেন, আমেরিকা হু-কে আর কোনো অনুদান দেবে না।


ভিসার নিয়ম ভেঙে ধর্মপ্রচার, তাবলিগ জামাতে যোগ দেওয়া ৫৭ জন বিদেশিকে এবার জেলে পুড়ল পুলিশ
আরও এক মাসের জন্য লকডাউন বাড়ল ফ্রান্সে, সমাধান অধরা, অসহায় স্বীকারোক্তি ম্যাক্রঁর
আক্রান্তের সংখ্যা ৫ হাজার ছাড়িয়েছে, নাচতে ব্যস্ত পাক চিকিৎসকরা, ভিডিও শেয়ার করলেন গম্ভীর

ম্পের অভিযোগ, করোনাভাইরাস মোকাবিলায় হু পুরোপুরি ব্যর্থ হয়েছে। এই ব্যর্থতার দায়িত্ব হু-কে নিতে হবে বলেও মন্তব্য করেছেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট। ট্রাম্পহোয়াইট হাউসে  এক প্রেস কনফারেন্সে জানিয়েছেন, হু-কে আর্থিক সাহায্য বন্ধ করে দিতে তিনি প্রশাসনকে নির্দেশ দিয়েছেন।

ট্রাম্প একাধিক বার অভিযোগ করেছেন যে চিনের সঙ্গে হাত মিলিয়ে গোটা বিষয়টিকে ধামাচাপা দেওয়ার চেষ্টা করছে হু। যদিও তাঁর এই বক্তব্যের কোনো সারবত্তা খুঁজে পাননি বিশেষজ্ঞরা। তবে গোটা বিশ্বে করোনা সংক্রমণ নিয়ে শুধু বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থাই নয়, রাষ্ট্রসংঘকেও  রীতিমতো আক্রমণ করেন ট্রাম্প। তাঁর অভিযোগ, চিনের দেওয়া তথ্যের উপর ভরসা করাতেই বিশ্ব জুড়ে করোনা সংক্রমণ ২০ গুণ বেশি দ্রুত ছড়িয়ে পড়েছে। গোটা পরিস্থিতি খতিয়ে দেখে এবং আমেরিকায় যেভাবে এই ভাইরাস অসংখ্য মানুষের প্রাণ কাড়ছে তা দেখে এবার আর হুমকি নয়, সরাসরি বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার তহবিলে টাকা দেওয়া বন্ধ করে দিল মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র। গত বছর হু- কে ৪০০ মিলিয়ন ডলার দিয়েছিলেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট। এবার আর কোনও অর্থসাহায্য নয়, স্পষ্ট জানালেন ডোনাল্ড ট্রাম্প। 

ট্রাম্পের অভিযোগ, করোনা ভাইরাস নিয়ে চিনের প্রতি পক্ষপাতিত্ব করছে হু। মার্কিন প্রেসিডেন্টের দাবি, চিন থেকেই গোটা বিশ্বে ছড়িয়েছে এই মারণ রোগ। পাশাপাশি হু আগে থেকে এই মারণ ভাইরাস প্রতিরোধের কোনও পরামর্শও দেয়নি বলে অভিযোগ করেন মার্কিন সর্বেসর্বা। অন্যান্য দেশকেও করোনা নিয়ে হু ঠিক তথ্য দেয়নি বলেও অভিযোগ করেন তিনি।

আমেরিকা হু-কে সব চেয়ে বেশি আর্থিক সাহায্য করে। হু-এর বাজেটের ১৫ শতাংশ আসে আমেরিকার থেকে। ট্রাম্প এদিন বলেন, ”আমরা যে সাহায্য করেছি, তা আদৌ কোনো কাজে লাগানো হয়েছে কি না তা নিয়ে আমাদের যথেষ্ট উদ্বেগ রয়েছে।”