বর্ষার মরশুমে জলাভূমি থেকে  গৃহস্থের বাড়িতে ঢুকে পড়েছে কুমিরছানা, বা হাইওয়ে দিয়ে হেঁটে চলেছে বিশালাকায় কুমির, এমন খবর এদেশের সংবাদপত্রে মাঝেমঝ্যেই বার হতে দেখা যায়। এবার সাত সমুদ্র তেরো নদী পেরিয়ে মার্কিন মুলুকে খোঁজ পাওয়া গেল এক বিশালাকায় কুমিরের, যান শখ আবার গলফ খেলার। অবাক হচ্ছেন? হবার মতোই কথা। কিন্তু ভিডিওটি দেখলেই আপনি বুঝতে পারবেন গলফ বল নিয়ে শ্রীমান কুমুরের ঠিক উৎসাহ কতটা।

আরও পড়ুন: পাকিস্তান ঘনিষ্ঠতার মূল্য চোকাচ্ছে বেজিং, চিনের সঙ্গে সৌদি বাতিল করল ১০ বিলিয়ন মার্কিন ডলারের চুক্তি

আমেরিকার লুইজিয়ানা প্রদেশে কুমিকের সাক্ষাৎ পাওয়া খুব সাধারণ ব্যাপার। এই অঙ্গরাজ্যের বন্যজীবন ও মৎস্য বিভাগের মতে, এখানে মার্কিন মুলুকের মধ্যে সর্বাধিক কুমিরের বাস। সেই সংখ্যাটা বর্তমানে প্রায় ২০ লাখে পৌঁছে গিয়েছে। তাদের মধ্যে একটি কুমির এবার দখল নিল গলফ ক্লাবের। 

সম্প্রতি অনলাইনে ভাইরাল হওয়া একটি ভিডিওতে দেখা যাচ্ছে একদল গলফারের দলে যুক্ত হয়েছে একটি কুমির। বিশালাকায় সেই কুমির শান্তভাবে তাঁদের গলফ বল মুখে নিয়ে যাচ্ছে।

 

 

লেন রড্রিগ নামের এক ব্যক্তি জানিয়েছেন, সোমবার লুইজিয়ানার প্যাটারসনে আইডলইল্ড গলফ কোর্সে খেলছিলেন তিনি। তখন কুমিরটি তাদের ডানদিক দিয়ে গলফ ক্লাবে হাজির হয়  এবং তাদের বলটি ছিনিয়ে নিয়ে যায়।

 ভিডিওতে দেখা যাচ্ছে, বিশালাকার সরীসৃপ প্রাণিটি তার চোয়ালগুলো খোলা রেখেছে,  যাতে গলফাররা তাঁদের বল দাবি করতে সাহস পায়।

আরও পড়ুন:আমেরিকায় এবার করোনা রোগীদের চিকিৎসা হবে প্লাজমা থেরাপিতে, চাপের মুখে জরুরি অনুমোদন ট্রাম্প প্রশাসনের

ভিডিওটি ইতিমধ্যে বিভিন্ন সোশ্যাল মিডিয়া সাইটে  ভাইরাল হয়ে উঠেছে। । ট্যুইটারে পোস্ট হওয়ার পরে ইতিমধ্যে তা  ২ লাখেরও বেশি ভিউ এবং শত শত কমেন্ট অর্জন করেছে। সকলেই সেই কুমিরের কীর্তি দেখে হতবাক। তাতে কমেন্টও এসেছে সব মজার মজার। 

স্থানীয় কোনও জলাশয় থেকে কুমিরটা গলফ কোর্সে চলে এসেছিল বলে মনে করা হচ্ছে। তবে গলফ খেলোয়াড়রা তাদের বল পুনরুদ্ধার করতে কোনো প্রচেষ্টা করেনি বলেই শেষপর্যন্ত কারোরি কোনোও ক্ষতি হয়নি। বরং কুমিরের কীর্তি ভাইরাল হয়ে ছড়িয়েছে সোশ্যাল মিডিয়ায়।