‘টেক্সাস ইন্ডিয়া ফোরাম’-এর উদ্য়োগে গতকাল অনুষ্ঠিত হল 'হাউডি মোদী'। ভারতীয় সময় ৯ টা বেজে ৪০ মিনিট। হিউস্টনের এনআরজি স্টেডিয়াম তখন ভিড়ে ঠাসা। সেই সময় মঞ্চে উপস্থিত হন নরেন্দ্র মোদী। রবিবার অনুষ্ঠানের সেই মঞ্চ থেকে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী বিশ্বজুড়ে সন্ত্রাসবাদের পৃষ্ঠপোষকতা করায় ধিক্কার জানিয়েছেন পাকিস্তানকে। পাকিস্তানের নাম উল্লেখ না করেই প্রধানমন্ত্রী বলেন, "আমার দেশে ৩৭০ ধারা প্রত্যাহার করায় সমস্যা হচ্ছে অন্য দেশের, যাঁরা নিজেদের দেশের অভ্যন্তরীণ বিষয় সামলে উঠতে পারেন না।"

আরও পড়ুন- 'হাউডি মোদী' অনুষ্ঠানে কবিতা পাঠে প্রধানমন্ত্রী, জিতে নিলেন কয়েক হাজার হৃদয়
সভায় উপস্থিত গ্লোবাল কমিউনিটি এই বিষয়ে ভারতের পক্ষেই থেকেছে। পাকিস্তান নিজেদের এজেন্ডার পক্ষে কোনও সমর্থন না পাওয়া সত্ত্বেও, নিউ ইয়র্কের আসন্ন জাতি সংঘের সাধারণ অধিবেশনে বিষয়টি উত্থাপন করার প্রতিশ্রুতি দিয়েছে,তবে ভারত তা বরখাস্ত করেছে। প্রধানমন্ত্রী পুনরায় উল্লেখ করেছেন যে, 'জম্মু ও কাশ্মীরে বিশেষ মর্যাদায় ৩৭০ ধারা সরিয়ে নেওয়ার সিদ্ধান্ত সম্পূর্ণ দেশের অভ্যন্তরীণ বিষয়। এই সিদ্ধান্তে প্রতিবেশী কোনও দেশের সমস্যা সৃষ্টি করতে চায়নি ভারত।' বিশ্বজুড়ে সন্ত্রাসবাদ মোকাবিলার বার্তাও দিয়েছেন তিনি। এই বিষয়ে তিনি বলেছেন, সন্ত্রাসবাদের বিরুদ্ধে সকলকে একসঙ্গে লড়তে হবে। এমন সমস্যায় দেশের পাশে অনেকবার পাশে থেকে সাহায্য করেছেন ট্রাম্প।

আরও পড়ুন- 'অব কি বার, ট্রাম্প সরকার', বন্ধুর হয়ে হিউস্টনে ভোট প্রচারটাও করে দিলেন মোদী
মোদী সন্ত্রাসবাদের বিষয়ে আরও বলেছেন, "এই দেশ শান্তির পরিবর্তে সন্ত্রাসবাদকে সমর্থন করে, তারা তাদের মাটিতে সন্ত্রাসবাদকে লালন করে। ভারতের ২৬/১১ হোক বা মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের ৯/১১ প্রত্যেকটি ঘটনার সঙ্গে যোগসূত্র রয়েছে এই দেশের।" হিউস্টনে মোদীর বক্তব্যের কিছু সময় পরেই কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ এই অনুষ্ঠানটিকে একটি "বিশ্ব রাজনীতির ঐতিহাসিক দিন" বলে সম্ভাষণ করেছেন। তিনি আরও বলেছেন, প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্রমোদীর নেতৃত্বে নতুন ভারতের শক্তির সাক্ষ্য বলে অভিহিত করেছেন।