যুক্তরাষ্ট্রের ভারমন্ট রাজ্যের ফেয়ার হ্যাভেন ছোট্ট একটি শহর। বিশ্বের আর বাকি সাধারন পাঁচটা শহরের থেকে একটু হলেও আলাদা এই শহর। এই শহরের জনসংখ্যা  ২৫০০-এর কাছাকাছি। তবে মজার বিষয়টি হল এই শহরের কোনও অফিশিয়াল মেয়র নেই। মিশিগান শহরের একটি ঘটনা থেকে পশুদেরল নিয়ে নির্বাচনের উদ্যোগ নেয় এই শহর। আর এই পশু নির্বাচনের ব্যবস্থা করেন নগর ব্যবস্থাপক জোসেফ গুন্টার।

আরও পড়ুন- করোনা আতঙ্কের মাঝে পরিণতি পেল ভালবাসা, চিন থেকে এসে সত্যর্থকে বিয়ে করলেন জিহাও

২০১৯ সালে এই শহরের গণিতের এক শিক্ষকের এক পোষ্য ছাগল শহরের মেয়র হিসেবে ভোটে জয়লাভ করে। ১৫জন প্রার্থীকে হারিয়ে তিন বছরের লিঙ্কন নামের ছাগলটি শহরের মেয়র নির্বাচনে জয়ী হয়।  সে মোট ভোট পেয়েছিল ৫৩ টি। তাই গত বারের মত এই বছরেও চলছে শহরের মেয়র পদের নির্বাচনী লড়াই। এইবারে প্রার্থী হিসেবে রয়েছে গত বছরের বিজয়ী লিঙ্কন, ৩ বছর বয়সী স্যামি ও মফি নামের দুটি কুকুর। আগামী ৩রা মার্চ ভোটগ্রহণ অনুষ্ঠিত হবে। জনগনকে ভোট দেওয়ার জন্য ১ ডলার করে দিতে হবে যা নগর উন্নয়নের কাজে ব্যবহৃত হবে। 

আরও পড়ুন- করোনার পর এবার বার্ডফ্লু আতঙ্ক, হত্যা করা হল ১৮,০০০ মুরগিকে

লিঙ্কন-এর বাড়ির লোকেরা জানিয়েছেন, বিগত ১ বছর ধরে লিঙ্কন তাঁর দায়িত্ব সঠিকভাবে পালন করেছেন। তাই এইবারেও সেই জিতবে বলে আশাবাদী তাঁর পরিবার। নতুন দুই প্রার্থীর তরফ থেকে তাঁদের পরিবারের সদস্যরা জানিয়েছেন, মফি হাসপাতালে গিয়ে লোকদের সহায়তা করে। তাই নির্বাচনের এই প্রতিযোগীতা আরও জোড়ালো হবে বলে তাঁরা আশা করছে। পাশাপাশি শহরের বাসিন্দারাও এই নির্বাচন নিয়ে বেশ আশাবাদী। এই নির্বাচন নিয়ে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে তাদের প্রতিক্রিয়াও ও নিজেদের পছন্দের প্রার্থীর জন্য প্রচার শুরু করেছেন তাঁরা।