সিরিয়া  ও ইরাক থেকে আইএসের খিলাফৎ শাসন অবলুপ্তি ঘটিয়েছে। এখন মাঝে মাঝে বিভিন্ন দেশে গেরিলা হামলা চালানো ছাড়া আইএসের কাছে কোনও বিকল্প নেই। আইএসকে সমূলে উৎখাত করতে নতুন পথ ধরেছে আমেরিকা। আইএসের  প্রধান আবু বকর আল- বাগাদাদিকে হত্যা করার জন্য অভিযান শুরু করেছে আমেরিকা। এই অভিযান সফল হয়েছে কি না, এই বিষয়ে কোনও বিস্তারিত তথ্য মার্কিন প্রশাসনের তরফে জানানো হয়নি।  এই বিষয়ে মার্কিন স্থানীয় সময় রবিবার সকালে সংবাদিক সম্মেলন করবেন বলে মার্কিন প্রশাসনের তরফে এক বিবৃতিতে জানানো হয়েছে। 

একাধিক বার গুজব উঠেছে আইএস প্রধান বাগদাদি পশ্চিমি দেশের জোট অভিযানে মারা গিয়েছে। তবে সেটা যে নেহাৎ গুজব, তার প্রমাণ মাঝে মাঝেই পাওয়া গিয়েছে। বাগদাদি নিজের অস্তিত্বের প্রমাণ দিয়ে ভিডিও রেকর্ডিং ও প্রকাশ করেছে বহুবার। নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক মার্কিন প্রশাসনের এক আধিকারিক জানিয়েছেন, সম্প্রতি সিরিয়ার ইদলিব প্রদেশে মার্কিন বাহিনী একটি অভিযান করেছে। কিন্তু সেই অভিযানে আদতে আইএস কতটা বিনষ্ট হয়েছে, তা জানাতে অস্বীকার করেছেন মার্কিন প্রশাসনের ওই আধিকারিক।  মার্কিন প্রতিরক্ষার সদর দপ্তর পেন্টাগণও এই বিষয়ে কোনও মন্তব্য করতে অস্বীকার করেছে বলে জানা গিয়েছে। 

হোয়াইট হাউসের পক্ষ থেকে শনিবার জানানো হয়েছে, রবিবার সকাল নয়টা নাগাদ মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প একটি জরুরি সাংবাদিক সম্মেলন করতে চলেছেন। এই সাংবাদিক সম্মেলনে সিরিয়ার ইডলিব প্রদেশে অভিযান সম্পর্কে বিস্তারিত তথ্য তিনি দেবেন বলে মনে করা হচ্ছে। মার্কিন সেনাবাহিনীর ওই অভিযানে বাগদাদি নিহত হয়েছেন কি না এই নিয়ে জোর জল্পনা বিশ্বজুড়ে তৈরি হয়েছে। শনিবার রাতে টুইটে মার্কিন রাষ্ট্রপতি ডোনাল্ড ট্রাম্প নিজের উচ্ছ্বাস চেপে রাখতে পারেননি। সেখানে তিনি জানিয়েছেন,  এই মাত্র একটা বড় ঘটনা ঘটল। রবিবার সকালেই সেই বিষয়ে ট্রাম্প বিস্তারিত মন্তব্য পেশ করবেন বলে মনে করা হচ্ছে।