চিনের সঙ্গে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের সম্পর্কের উত্তেজনা আরও বাড়ল। বুধবার ট্রাম্প প্রশাসন আমেরিকায় চিনা উড়ান সংস্থাগুলির কার্যক্রম নিষিদ্ধ ঘোষণা করল। মার্কিন পরিবহন বিভাগ জানিয়েছে আগামী ১৬ জুন থেকে চারটি চিনা এয়ারলাইন্সের কোনও যাত্রীবাহী বিমান আমেরিকা যুক্তরাষ্ট্রে অবতরণ করতে দেওয়া হবে না, আমেরিকা থেকে উড়ে যেতেও দেওয়া হবে না।

চলতি বছরের করোনভাইরাস মহামারির বিস্তার রোধে করতে চলতি বছরের শুরুতেই মার্কিন সংস্থা ইউনাইটেড এয়ারলাইনস এবং ডেল্টা এয়ারলাইন্স-এর বিমানগুলির কার্যক্রম চিনের মাটিতে স্থগিত করেছিল সেই দেশের সরকার। এই সপ্তাহ থেকে চিনে ওই দুই মার্কিন উড়ান সংস্থার কাজ শুরু করার কথা ছিল। কিন্তু, চিন সরকার তার অনুমতি দিতে পারেনি। এরই প্রতিক্রিয়ায় এই সিদ্ধান্ত নিয়েছে ট্রাম্প প্রশাসন।

মার্কিন পরিবহণ দপ্তর বলেছে, দু'দেশের মধ্যে বিমান চলাতল সংক্রান্ত যে চুক্তি রয়েছে চিন তা লঙ্ঘন করেছে। এই চুক্তি অনুযায়ী দুই দেশের বিমান সংস্থাগুলিই একএ অপরের দেশে সমান সংখ্যক বিমান চালাবে।  

তবে চিনা সংস্থাগুলির বিমান চলাচল, মার্কিন মুলুকে একেবারে বন্ধ করে দেওয়া হল, তা নয়। পরিবহন দপ্তর জানিয়েছে, তারা এই বিষয়ে চিনের পরিবহন দপ্তরের সঙ্গে আলোচনা করবে। দুই দেশের উড়ান সংস্থাগুলিই যাতে তাদের দ্বিপাক্ষিক অধিকারগুলি সম্পূর্ণরূপে প্রয়োগ করতে পারে,  সেই বিষয়টি নিশ্চিত করা হবে। যতদিন না তা হচ্ছে, ততদিন চিনে যে কটি মার্কিন বিমান চলছে, সেই কটি চিনা বিমানই মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রে চালাতে দেওয়া হবে। ১৬ জুন তারিখের আগেই এই বিষয়ে সরকারি আদেশ কার্যকর করবেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প ।