জো বাইনের মন্ত্রিসভার গুরুত্বপূর্ণ দায়িত্ব পেতে চলেছেন ভারতীয় বংশোদ্ভূত অরুণ মজুমদার।সম্ভবত তাঁকে শক্তি সচিবের দায়িত্ব দেওয়া হবে। শুধু রাজনীতি হিসেবেই বিখ্যাত নন অরুণ কুমার। এই প্রবাসী আমেরিকান বোম্বে আইআইটির ছাত্র।  প্রায় ১০০টিরও বেশি গবেষণা পত্র রয়েছে তাঁর। বর্তমানে তিনি স্ট্যান্ডফোর্ড বিশ্ববিদ্যালয়ের অধ্যাপক। প্রাক্তন মার্কিন রাষ্ট্রপতি বারাক ওবামারও আস্থাভাজন ছিলেন তিনি। ডেমোক্র্যাট শীর্ষ নেতৃত্বের কাছে অরুণ মজুমদার হিসেবে পরিচিত হলেও তাঁর আসল নাম অরুণাভ মজুমদার। 

শীতের আগেই চোখ রাঙাচ্ছে করোনা আক্রান্তের পরিসংখ্যান, দৈনিক সংক্রমণে প্রথম জাতীয় রাজধানী ...

২৫ বছর পরেও ডায়নাকে নিয়ে কাটাছেঁড়া, বিয়ে নিয়ে দেওয়া সাক্ষাৎকারের তদন্ত শুরু ...

বোম্বে আইআইটি থেকে মেকানিক্যাল ইঞ্জিনিয়ারিং-এ বিটেক ডিগ্রি পাওয়ার পরে তিনি চলে যায় আমেরিকায়। তারপর থেকে সেখানেই শুরু হয় তাঁর কর্মজীবন। ক্যালিফোর্নিয়া বিশ্ববিদ্যালয় থেকে পিএইচডি করেন।বর্তমানে তিনি স্ট্যান্ডফোর্ড বিশ্ব বিদ্যায়লেয়ের মেকানিক্যাল ইঞ্জিনিয়ার ও মেটিরিয়াল সায়েন্সের অধ্যাপক। আগে অ্যারিজোনা স্টেট  ইউনিভার্সিটি ও ইউনিভার্সিটি অব ক্যালিফোর্নিয়ায় অধ্যাপনা করেছেন। 

বারাক ওবামার আমল থেকেই হোয়াইট হাউসে তাঁর আনাগোনা। ওবামার আমেলে তৈরি হওয়া অ্যাডভান্স রিসার্চ প্রোজেক্ট এসেন্সি-এনার্জির তিনি প্রতিষ্ঠাতা  অধিকর্তা ছিলেন। আমেরিকার ন্যাশানাল সায়েন্স-সহ একাধিক প্রতিষ্ঠানের সঙ্গে যুক্ত রয়েছেন অরুণ মজুমদার। তবে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের এনার্জি দফতের আন্ডার সেক্রেটারি পদে ২০১১ ও ২০১২ সালে মনোনীত হয়েও নাম প্রত্যাহার করে নিয়েছিলেন। একটা সময় তিনি লরেন্স বার্কেল ল্যাবরেটরিতে এনভায়রনমেন্টাল এনার্জি টেকনোলজির প্রধান  হিসেবেও কাজ করেছেন। গুগুলের পরামর্শদাতা হিসেবেও কাজ করেছেন ২০১২ সালে।