অমিত শাহ-র পর এবার মতুয়াদের মন জয় করতে ঠাকুরনগরে অভিষেক। বৃহস্পতিবার একদিকে যখন নৈহাটিতে তৃণমূলকে তোপ দাগতে ব্যস্ত জেপি নাড্ডা, তখনই বাউন্ডারি পেরিয়ে ছয় তুললেন তৃণমূলের যুবরাজ। তাহলে প্রশ্ন টা হল, খেলা কি তবে শুরু হয়ে গিয়েছে, গুঞ্জন শহরের অলিতে-গলিতে। 

আরও পড়ুন, ' গেস্টহাউজে কেন্দ্রীয় দলকে আটকে রাখা হয়েছিল', করোনা-ডেঙ্গু নিয়ে তৃণমূলকে নিশানা নাড্ডার 

 


এদিন বক্তব্যের শুরুতেই অভিষেক বলেছেন, নির্বাচনের আগে নাগরিকত্ব নিয়ে ভাঁওতা দিচ্ছেন অমিত শাহ। মতুয়ারা এই দেশে অবৈধ হলে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর নাগরিকত্বও অবৈধ,অমিত শাহ অবৈধ। অসমে এনআরসি করে হিন্দু বাঙালিদের তাড়িয়ে দিচ্ছে বিজেপি সরকার, ঠাকুরনগরের সভা থেকে অভিযোগ করলেন অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়।'প্রধানমন্ত্রী পদের দাম নেই, স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী পদের দাম নেই', এদিন মতুয়া ইস্যুতে মোদী-শাহকে একের পর এক নিশানা করেন তৃণমূলের যুবরাজ।

 

 

আরও পড়ুন, 'খেলা হবে', অনুব্রতর হুঙ্কারে জেগে উঠল শিবপুরের ১৭-র রাজনৈতিক ইতিহাস  

 


অপরদিকে, বিজেপিকে চ্যালেঞ্জ জানিয়ে এদিন অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায় বলেন, তৃণমূল ২৩০ এর বেশি আসন পাবে। তিনি কেন্দ্রের উদ্দেশ্য়ে হুশিয়ারি দিয়ে জানিয়েছেন জোর করে চাপিয়ে দেওয়ার রাজনীতি চলবে না। প্রসঙ্গত, ১১ ফেব্রুয়ারি বাংলায় মতুয়াদের মন জয় করতে আসেন অমিত শাহ। সেবার শাহ সফরের প্রধান ইস্যুই ছলি নাগরিকত্ব আইন। তবে ঠাকুরনগরে এসে শাহ ঘোষণা করেন কোভিডের ভ্য়াকসিন পর্ব শেষ হয়ে গেলেই নাগরিকত্ব দেওয়া হবে। যদিও তিনিও মমতার সুরেই বলেন সেদিন সব মতুয়াই নাগরিক। একুশের নির্বাচনের দোরগড়ায় দাঁড়িয়ে মতুয়াদের মন জয় করতে পারল কারা, তা কেবলই বলতে পারবে ভোটের রেজাল্ট।