প্রথম শোনা গিয়েছিল দিল্লিতে। গতবছর বিধানসভা নির্বাচনের সময় 'দেশ কি গদ্দারো কো, গোলি মারো শালো কো', স্লোগান তুলে বিতর্কে জড়িয়েছিলেন কেন্দ্রীয় অর্থ প্রতিমন্ত্রী অনুরাগ ঠাকুর। তা নিয়ে সমালোচনার ঝড় উঠেছিল দেশ জুডে়। এবার একুশের নির্বাচনের আগে বাংলাতেও একই স্লোগান শোনা গেল। মঙ্গলবার তৃণমূলের শান্তি মিছিলে এই স্লোগান শোনা। বুধবার শোনা গেল হুগলিতে। যদিও, এবার বিজেপির মিছিল থেকেই।

আরও পড়ুন-কাটমানি না পেয়ে 'পিটিয়ে খুন', কাঠগড়ায় তৃণমূল নেতা, পরিস্থিতি সামাল দিতে বসল পুলিশ পিকেট

'দেশ কি গদ্দারো কো, গোলি মারো শালো কো'। মঙ্গলবার তৃণমূলের স্লোগান নিয়ে শাসকদলে তীব্র কটাক্ষ করেছিলেন বিজেপির দিলীপ ঘোষ। বাংলায় গুলি, বোমার সংস্কৃতি চলছে বলে অভিযোগ করেছিলেন তিনি। শুধু তাই নয়, তৃণমূলকেই 'গদ্দার' বলে কটাক্ষ করেছিলেন। রেশন-আমফান দুর্নীতি নিয়ে শাসকদলকে একযোগে আক্রমণ করেছিলেন দিলীপ ঘোষ। রাজ্যের মানুষকে তৃণমূল কথা দিয়ে কথা রাখেনি বলে অভিযোগ করেছিলেন দিলীপ। গদ্দার স্লোগানের পাল্টা ব্যাখ্যা দিয়েছিলেন তিনি। কিন্তু সেই স্লোগানই শোনা গেল এবার বিজেপির মিছিল থেকে! তাও আবার শুভেন্দু অধিকারীর নেতৃত্বে আয়োজিত মিছিল থেকে।

 

 

অন্যদিকে, বুধবার হুগলির চন্দননগরে বিজেপির মিছিলে শোনা গেল গদ্দার স্লোগান। 'দেশ কি গদ্দারো কো, গোলি মারো শালো কো'। শুভেন্দু অধিকারীর নেতৃত্বে এই স্লোগান দিতে দিতে মিছিল করলেন বিজেপির কর্মী সমর্থকরা। যদিও, বিজেপি নেতা সুরেশ সাউয়ের সাফাই, ''দেশে অনুপ্রবেশ ঘটলে বা সন্ত্রাসবাদীরা হামলা চালালে সেনারা যেভাবে প্রতিবাদ করেন, সেটাই তুলে ধরেছেন দলীয় কর্মারা''। বিজেপির রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষের এই মন্তব্যের পরই দলীয় মিছিল থেকেই স্লোগান ঘিরে রাজনৈতিক চাপানউতোর শুরু হয়েছে।