রবিবার থেকে নন্দীগ্রামে মমতা। দ্বিতীয় দফার ভোটে সারা বাংলার নজর এখন নন্দীগ্রামের দিকে। যদিও মমতা আগেই জানিয়েছিলেন তিনি নন্দীগ্রামের ভোটের দিনের আগে থেকেই সেখানে থাকবেন। পাশাপাশি মমতার প্রধান প্রতিপক্ষ শুভেন্দুকে শক্তি যোগাতে নন্দীগ্রামে প্রচারের ঝড় তুলতে আসছেন মিঠুন চক্রবর্তী এবং অমিত শাহ।  

আরও পড়ুন, 'কীভাবে কড়া ডোজ দিতে হয় জানি', সৌমেন্দুর গাড়ি হামলাকাণ্ডে বিস্ফোরক শিশির 

 

প্রথম দপার নির্বাচন শেষ।দ্বিতীয় দফার ভোটে সবচেয়ে হাইভোল্টেজ কেন্দ্র নন্দীগ্রাম।এবার গোটা রাজ্য়ের নজর এখন নন্দীগ্রামের দিকে।  এখানে প্রার্থী হিসাবে দাঁড়িয়েছেন খোদ তৃণমূল নেত্রী মমতা বন্দ্য়োপাধ্য়ায়। আর ওদিকে ঘাসফুল শিবির ছেড়ে দেবার পর এইমুহূর্তে নন্দীগ্রামে বিজেপির প্রার্থী হয়ে মমতার প্রতিদ্বন্দি শুভেন্দু অধিকারী। নন্দীগ্রামে রবিবারেই যাচ্ছেন মমতা বন্দ্য়োপাধ্য়ায়।  পাশপাশি শুভেন্দুকে সমর্থনে নন্দীগ্রামে প্রচারের ঝড় তুলতে আসছেন মিঠুন চক্রবর্তী এবং অমিত শাহ। বিজেপি সূত্রের খবর ৩০ মার্চ ফের নন্দীগ্রামে আসতে পারেন অমিত শাহ। যদিও শুধু শুভেন্দু এবং শাহকে দিয়ে প্রচার করিয়ে সন্তুষ্ট নয় গেরুয়া শিবির। তাই বঙ্গ বিজেপির অন্যতম মুখ সুপারস্টার মিঠুন চক্রবর্তীকে দিয়ে নন্দীগ্রামে প্রচারের ঝড় তুলতে চায় গেরুয়া শিবির।

আরও পড়ুন, নন্দীগ্রামের বিজেপি নেতা প্রলয় পালকে ফোন মমতার, বিস্ফোরক অডিও ক্লিপ ফাঁস, কী বলেছিলেন তৃণমূল সুপ্রিম 

 

 সম্প্রতি, প্রচারে নন্দীগ্রেম প্রচারে বেরিয়ে জয় শ্রীরাম স্লোগান নেবার পর শুভেন্দু রসিকতা করে গ্রামবাসীকে বলেছিলেন,  মমতাজ বেগমকে একদম ভোট দেবেন না। স্বাভাবিকভাবেই ২০১১ এর পর থেকে রাজ্যে তৃণমূল ক্ষমতায় আসার পর থেকে নন্দীগ্রামে চেনা মুখ শুভেন্দু তথা তাঁর পুরো পরিবার। এই মুহূর্তে অধিকারী পরিবারের প্রায় প্রত্য়েকেই বাংলার পদ্মের মুখ। এহেন পরিস্থিতিতে নন্দীগ্রামে ঘাসফুলের জয় আনতে রবিবার থেকেই তাই প্রচার চালাবেন মমতা।