ক্রমশই রাজনীতির আকর্ষণীয় কেন্দ্রবিবন্দু হয়ে উঠছে শুভেন্দু অধিকারীর গড় পূর্ব মেদিনীপুর। বেশ কয়েকদিন ঘরেই পদযাত্রা, সভা করে নিজের জেলায় দাপিয়ে বেড়াচ্ছেন বিজেপি নেতা শুভেন্দু অধিকারী। খড়দহ থেকে দেওয়া কথা অনুযায়ী নিজের ভাই সৌমেন্দু বিজেপতে যোগদান করেছেন। এই অবস্থায় শুভেন্দুর গড়ে অধিকারী পরিবারকে টেক্কা দিতে মাঠে নামলেন রামনগরের বিধায়ক অখিল গিরির ছেলে সুপ্রকাশ।

আরও পড়ুন-'বাংলায় পদ্ম ফোটাবে দিলীপ-শুভেন্দু', ঝাড়গ্রাম- সভা থেকে তৃণমূলকে হুঁশিয়ারি 'শিশির' পুত্রের

অধিকারী পরিবারে দলত্যাগ চলছে। সেই পর্বেই পূর্ব মেদিনীপুর সাংগঠনিক পর্যায়ে বড়সড় রদবদল ঘটাল শাসক দল তৃণমূল কংগ্রেস। রামনগরের বিধায়ক অখিল গিরির ছেলে সুপ্রকাশ গিরিকে জেলা যুব তৃণমূলের পদে বসানো হয়েছে। ওই পদ থেকে পার্থসারথী মাইতিকে বসানো হয়েছে রাজ্য সহ-সভাপতি পদে। শুভেন্দুর দল বদলের পর থেকে ওই জেলায় সাংগঠনিক পদগুলিতে অধিকারী পরিবারের প্রভাব কমাতে তাঁদের ঘনিষ্ঠদের সরিয়ে বিক্ষুব্ধ গোষ্ঠীকে বসানো হচ্ছে বিভিন্ন পদে। সেই অভিযানের পর্ব হিসেবে সুপ্রকাশ গিরিকে বসায় তৃণমূল কংগ্রেস।

আরও পড়ুন-রাজপথে দুর্ঘটনার কবলে রাজীব বন্দ্যোপাধ্য়ায়ের গাড়ি, এখন কেমন আছেন বনমন্ত্রী

এই বড়সড় রদবদল অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়ের নির্দেশে করা হয়েছে বলে সূত্রের খবর। প্রসঙ্গত, গত ২৩ জুলাই সুপ্রকাশ গিরিকে জেলা যুব সভাপতির পদ থেকে সরিয়ে রাজ্য সহ সভাপতির পদে বসিয়েছিলেন অভিষেক বন্দ্যোপাধ্য়ায়। কাঁথি পুরসভার প্রাক্তন পুর-প্রশাসক সৌমেন্দু অধিকারীকে অপসারণের পরই তিনি দাদার হাত ধরে বিজেপিতে যোগদান করেন। এই পরিস্থিতিতে শাসকদলে অখিল গিরির ছেলের দায়িত্ব বৃদ্ধি বড়সড় পদক্ষেপ বলে মনে করেছে রাজনৈতিকমহল।