শাজাহান আলি, পশ্চিম মেদিনীপুর-অমিত শাহের সভা থেকে ফেরার পথে আক্রান্ত হলেন বিজেপি কর্মীরা। মেদিনীপুরের দুটি পৃথক জায়গায় ঘটনাটি ঘটেছে। দাদার অনুগামীদের বাস ও গাড়িতে ভাঙচুর চাালনো হয়। হামলার অভিযোগ উঠেছে তৃণমূলের বিরুদ্ধে। হামলার জের বেশ কয়েকজন দাদার অনুগামী গুরুতর অবস্থায় হাসপাতালে ভর্তি।

আরও পড়ুন-'নন্দীগ্রামে আবার ভোটে দাঁড়াবেন, নির্বাচনে আমরাও বুঝিয়ে দেব', শুভেন্দুকে হুঁশিয়ারি কল্যাণের

জানাগিয়েছে, ঘাটাল মহকুমার থেকে কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর সভায় যোগ দেওয়ার জন্য এসেছিল বেশ কয়েকটি বাস। সভা শেষে বাসগুলি যখন গন্তব্যের দিকে ফিরছিল, সেই সময় কেশপুরের কাছে হামলা চালানো হয় বলে অভিযোগ। ইটের আঘাতে ভেঙে যায় বেশ কয়েকটি বাসের কাঁচ। বিজেপি কর্মীদের বাস থেকে নামিয়ে বেধড়ক মারধর করা হয় বলেও অভিযোগ। ঘটনায় হামলার অভিযোগ উঠেছে তৃণমূলের বিরুদ্ধে। ঘটনায় বেশ কয়েকজন বিজেপি কর্মীর আঘাত গুরুতর। অভিযোগের ভিত্তিতে ইতিমধ্যেই ঘটনার তদন্ত শুরু করেছে পুলিশ।

আরও পড়ুন-'বিজেপিতে যোগদানের খবর ভুয়ো, আমার বিরুদ্ধে চক্রান্ত', অস্তিত্ব জানান দিলেন তৃণমূল জেলা সহ সভাপতি

অন্যদিকে, চন্দ্রকোনা থেকে মেদিনীপুরের সভায় গিয়ে মারুতি। সেই সভা থেকে ফেরার পথে চন্দ্রকোনার কাছে বিজেপি কর্মীদের হামলা চালানো হয় বলে অভিযোগ। ভাঙচুর চালানো হয় মারুতি গাড়িতেও। হামলায় গুরুতর আহত ৬ জনকে চন্দ্রকোনা গ্রামীণ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। আবার, শুভেন্দুর দল বদলের পরই তাঁর পোস্টার আগুনে পুড়িয়ে দিল তৃণমূল কর্মীরা। পশ্চিম মেদিনীপুরের দাসপুরে তৃণমূল বুথ কমিটির উদ্যোগে হোর্ডিং ও ব্যানার পুড়িয়ে দেওয়া হয়।