একুশের বিধানসভা ভোট যতই এগিয়ে আসছে। ততই তীব্রতর হচ্ছে রাজনৈতিক হিংসা। বিজেপি-তৃণমূল সংঘর্ষে এক নৃশংস ঘটনার সাক্ষী থাকল কোচবিহার। বিজেপি কর্মীকে বেধড়ক মারধরের পর, তাঁর চোখ খুবলে নেওয়ার অভিযোগ উঠেছে তৃণমূলের বিরুদ্ধে। গুরুতর অবস্থায় হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় রয়েছেন আক্রান্ত ওই বিজেপিকর্মী।

আরও পড়ুন-বাড়ি নিয়ে অর্মত্য সেনের সম্পর্কে বিতর্কিত মন্তব্য, ব্রাত্য বসুর আহ্বানে প্রতিবাদে সুশীল সমাজ

শুক্রবার বিকেলের পর থেকে রাজনৈতিক সংঘর্ষ উত্তপ্ত পরিস্থিতি তৈরি হয়েছিল কোচবিহারের মাথাভাঙায়। ওই এলাকায় ব্যাপক বোমাবাজির অভিযোগ ওঠে। সেই ঘটনার পরই, দিনহাটার নজিরহাটে বিজেপি কর্মী দীননাথ বর্মনের উপর হামলার অভিযোগ ওঠে তৃণমূলের বিরুদ্ধে। এদিন দলীয় অফিসের সামনে এলে, তাঁকে লক্ষ্য করে তৃণমূল হামলা চালায় বলে অভিযোগ। বেধড়ক মারধরের পর, তাঁর চোখ খুবলে নেওয়া হয় বলে অভিযোগ। ঘটনার পর থেকেই চম্পট দেয় হামলাকারীরা।

আরও পড়ুন-হেস্টিংসে বিজেপি দফতরে তৃণমূলের বিক্ষোভ-হামলার অভিযোগ, অমিত শাহকে চিঠি দিলেন কৈলাস

রক্তাক্ত অবস্থায় ওই বিজেপিকর্মীকে উদ্ধার করে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। দিনহাটা মহকুমা হাসপাতাল থেকে তাঁকে উদ্ধার করে  কোচবিহারে স্থানান্তরিত করা হয়েছে। আক্রান্ত বিজেপি কর্মী দীননাথ বর্মনের শারীরিক অবস্থা আশঙ্কাজনক। হামলার ঘটনায় জড়িতদের অবিলম্বে গ্রেফতারের দাবি জানিয়েছেন বিজেপি নেতা কর্মীরা। যদিও, হামলার অভিযোগ পুরোপুরি অস্বীকার করেছে তৃণমূল, ঘটনাটি বিজেপির গোষ্ঠীদ্বন্দ্বের ফল বলে দাবি তাঁদের।