সামনেই ২০২১ বিধানসভা নির্বাচন। ভোটারা যাতে পার্থীদের সঠিক মূল্য়ায়ন করতে পারেন, তাই কড়া পদক্ষেপ নিল সুপ্রিম কোর্ট। অপরাধ করলে, তা সেই পার্থীকেই জানান দিতে হবে ভোটারের কাছে। বলতে হবে যে দেখো আমার ঝুলিতে কী কী ফৌজদারি মামলা ঝুলছে। আর সেটা জানাতে সংবাদপত্র এবং টিভি চ্যানেলে বিজ্ঞাপণ দিতে হবে।   এই মনোনয়নপত্র জমা দেওয়ার পর প্রচার শেষ হওয়ার আগে পর্যন্ত মোট ৩ বার সংবাদমাধ্যমে বিজ্ঞাপণ দিতে হবে, তা নির্দিষ্ট করে সমস্ত রাজনৈতিক দলগুলিকে নির্দেশনামা পাঠিয়েছে  নির্বাচন কমিশন।

আরও পড়ুন, 'ধর্মীয় ভাবাবেগে আঘাত', সায়নীর বিরুদ্ধে অভিযোগ দায়ের করলেন BJP নেতা তথাগত

 

খোলসা করলেন এক কর্তা

তবে  আগের বারের থেকে আরও অনেক বেশি কড়া নির্বাচন কমিশন। খোলসা করলেন রাজ্যের মুখ্য নির্বাচন আধিকারিক দফতরের এক কর্তা। তিনি বললেন, গত নির্বাচন থেকে এই নিয়ম চালু হয়েছে। কিন্তু অনেক ক্ষেত্রে দেখা গিয়েছে, পার্থীরা ৩ বার বিজ্ঞাপণ দিয়েছেন ঠিকই, কিন্তু কখনও কখনও সেই বিজ্ঞাপণ তাঁরা এমন এমন দিনে দিয়েছেন, তা ভোটারদের চোখে পড়েনি। সে কারণেই এবার এই বিধি জারি করেছে কমিশন।' নিয়ম অনুযায়ী, মনোনয়নপত্র জমা দেওয়ার পর প্রচার শেষ হওয়ার আগে পর্যন্ত মোট ৩ বার সংবাদমাধ্যমে বিজ্ঞাপণ দিতে হবে। সেই তথ্য প্রমাণ-সহ কমিশন জানাতেও হবে।


 আরও পড়ুন, ' দিদি আমাদের বাঁচান', স্থায়ীকরণ-বেতনের দাবিতে মুখ্যমন্ত্রীকে রক্তে লেখা চিঠি পার্শ্বশিক্ষকদের


প্রার্থীদের ৬৮ শতাংশের বিরুদ্ধে ফৌজদারি মামলা

উল্লেখ্য পরিসংখ্যান অনুযায়ী গত লোকসভা নির্বাচনে রাজ্য়ের প্রায় অর্ধেকের বেশি প্রার্থীর বিরুদ্ধে একাধিক ফৌজদারি মামলা ছিল। সদ্য শেষ হওয়া বিহার নির্বাচনে বিজয়ী প্রার্থীদের ৬৮ শতাংশের বিরুদ্ধে ফৌজদারি মামলা রয়েছে। বর্তমান এবং প্রাক্তন জনপ্রতিনিধিদের বিরুদ্ধে মোট ৪,৪৪২ টি ফৌজদারি মামলা বিচারীধীন রয়েছে।  সুতরাং ভোটার চোখ কোনও ফাঁকি দেওয়া চলবে না, নিঃশ্চিদ্র মূল্য়ায়ন করতে পারার জন্য ভোটারদের পাশে কমিশন।


 আরও পড়ুন, 'কাটমানির মতই ভাগাভাগি কেন্দ্রের ভ্যাকসিনও', তৃণমূল নেতাদের তোপ দিলীপের .