তাপস দাস, হলদিয়া- চাপা একটা আতঙ্ক। হলদিয়াবাসী মুখ খোলেন না, ক্যামেরার সামনে। গত ২০১৬ সালের পর থেকে সেখানে কোনও গণতান্ত্রিক বাতাবরণ নেই বলে অভিযোগ এলাকার বিজেপি প্রার্থী তাপসী মণ্ডলের। ২০১৮ সালের পঞ্চায়েত ভোটে ব্যাপক রিগিং এবং প্রার্থী না দিতে দেওয়ার ঘটনা এখনও দগদগে তাঁদের মনে। সম্ভবত সে কারণেই সরকার ও দল নিয়ে মুখ খুলতে চাইলেন না দোকানে বসা বৃদ্ধ। ভয় পাচ্ছেন কিনা, তার উত্তরে হ্যাঁ বললেন বটে, কিন্তু কিসের ভয়, সে নিয়ে মুখ খুললেন না। উল্টোদিকে বসা আরেক প্রৌঢ় বললেন, ভয় পেতে হয়। তাঁকে জিজ্ঞাসা করা হল. মুখ্যমন্ত্রী তো বলছেন, এখানে সকলে কথা বলতে পারে, কোনও ভয় নেই। চাঁছাছোলা জবাব এল, মন্ত্রীরা মন্ত্রীদের কথা বলবেন, সাধারণ মানুষ তাদের কথা বলবে। 

আরও পড়ুন- ক্ষমতায় এলেই CAA লাগু, 'সোনার বাংলা' গড়ার ডাক - কেমন হল বিজেপির ইস্তাহার

হলদিয়া শিল্পনগরীতে কর্মচঞ্চল করে রাখার ব্যাপারে বামফ্রন্ট প্রচুর ভূমিকা নিয়েছিল বলে দাবি করছেন তাপসী। বিজেপি প্রার্থী তাপসী মণ্ডল মাত্র কয়েক মাস হল সিপিএম থেকে এদিকে এলেন। তাঁর কথায় বার্তায় এখনও বামফ্রন্ট ও সিপিএমের পূর্ব আমলের শংসাপত্রের ভাষা। 

আরও পড়ুন- পাহাড়ে কঠিন লড়াই - ৩ আসনের প্রার্থী ঘোষণা করলেন গুরুং, মুখ ফেরালো তামাং-রা

 

এক সময়ের শিল্পচঞ্চল হলদিয়া, কর্মমুখর হলদিয়া, সম্ভাবনাময় হলদিয়া এখন খাঁ খাঁ। কেবল আগের সময়ের কিছু শিল্প চলছে। এক দশকে কিছু ঘটেনি। নতুন কিছু নয়। ফলে এবার নতুন চায় হলদিয়া। নতুন এক সম্ভাবনার শুরুর দিকে তাকিয়ে। সদ্য আগত তাপসীই সেই পথের নিশানা দেখাবেন কিনা, সে জন্য অপেক্ষা ছাড়া গতি নেই।