বর্ধমান মেগা রোড শো, সভা শেষের পর সাংবাদিক সম্মেলনে তৃণমূলকে তীব্র নিশানা করলেন বিজেপির সর্বভারতীয় সভাপতি জেপি নাড্ডা। বর্ধমানে রোড শো ও সভা করে ডায়মন্ড হারবারে কনভয়ে হামলার বদলা নিলেন বলে মনে করছে রাজনৈতিক মহল। কৃষকদের স্বার্থে মমতার সরকার কিছুই করেনি বলে অভিযোগ করলেন নাড্ডা। পাশাপাশি, তোলাবাজি, কাটমানি সহ একাধিক ইস্যুতে রাজ্য সরকারের বিরুদ্ধে সরব হন বিজেপি সভাপতি।

আরও পড়ুন-ডায়মন্ড হারবারের বদলা বর্ধমানে, নাড্ডার সফরে দিনভর কী ছিল, জেনে নিন

''বাংলার মানুষ পরিবর্তন থেকে পরিবর্তন চাই। জনসভা থেকে রোড শো। প্রতিটি জায়গা থেকেই বাংলার মানুষের উচ্ছ্বাস উদ্দীপনা চোখে পড়েছে। আগামী নির্বাচনে সরকার গড়বে বিজেপি। ২০০-র বেশি আসন আসন পাবে ভারতীয় জনতা পার্টি''। বর্ধমানের সাংবাদিক সম্মেলন থেকে দাবি করলেন বিজেপির সর্বভারতীয় সভাপতি জেপি নাড্ডা। পাশাপাশি, কৃষক উন্নয়ন নিয়েও মুখ্যমন্ত্রী একহাত নেন বিজেপির এই শীর্ষ নেতা । তিনি বলেন, ''কৃষক সম্মান নিধি প্রকল্প অনেক আগেই চালু করেছে কেন্দ্র। এতদিন পর ঘুম ভেঙেছে মমতা বন্দ্যোপাধ্য়ায়ের। কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্যবিমা এরাজ্যে চালু হতে দেয়বি সরকার। বিজেপি বাংলায় ক্ষমতায় এলে আয়ুষ্মান ভারত ও কিষাণ সম্মান নিধি প্রকল্প চালু করবে বিজেপি সরকার''।

আরও পড়ুন-অনুব্রতর সামনেই দলের বিরুদ্ধে নালিশ, তোলাবাজির অভিযোগ করলেন ব্লক সভাপতি

অন্যদিকে, ভোটের আগে রাজ্যের আইন-শৃঙ্খলা পরিস্থিতি নিয়েও রাজ্যকে তোপ দেন নাড্ডা। তিনি বলেন, ''গত একমাসে ৭ জন বিজেপিকর্মী খুন হয়েছেন। এখনও পর্যন্ত ৩০০ বিজেপি কর্মী খুন করেছে তৃণমূল। আমি নিজে হাতে তাঁদের আত্মার শান্তি কামনায় তর্পণ করেছি। বর্তমান রাজ্যের শাসকদল তোলাবাজি, কাটমানির সরকার। আমফান দুর্নীতি নিয়ে ক্যাগকে তদন্তের নির্দেশ দিয়েছে কলকাতা হাইকোর্ট। বাংলায় পদ্মফুট ফুটবেই''। বললেন বিজেপির সর্বভারতী সভাপতি জেপি নাড্ডা।