আশিস মণ্ডল, বীরভূম-ফের বেসুরো তৃণমূলের বীরভূমের নলহাটি ২ নম্বর ব্লক সভাপতি বিভাস চন্দ্র অধিকারী। এবার দলের জেলা সভাপতি অনুব্রত মণ্ডলকে মঞ্চে বসিয়ে গরুর টাকা তোলার অভিযোগ করলেন দলের কর্মীদের বিরুদ্ধে। এমনকি কিছু অফিসারও বিভিন্ন প্রকল্পের সুবিধা দিতে টাকা নিচ্ছি বলে অভিযোগ করেন তিনি। ব্লক সভাপতিকে সমর্থন করেছেন অনুব্রত মণ্ডলও।

আরও পড়ুন-'আমি রাজনীতি করতে আসিনি', রাজ্যের আইন-শৃঙ্খলা নিয়ে শাহ রিপোর্ট রাজ্যপালের

কয়েক দিন আগেই ব্লক ভিত্তিক জনসভা শুরু করেছে তৃণমূল। শনিবার নলহাটি ২ নম্বর ব্লকের লোহাপুরের মাঠে জনসভার আয়োজন করা হয়েছিল। সভায় বক্তব্য রাখতে গিয়ে ব্লক সভাপতি বিভাস চন্দ্র অধিকারী বলেন, “ঈশ্বর ও আল্লাহ্‌র নামে শপথ করে বলছি গরুর একটি টাকাও আমি খাইনি। কিন্তু কেউ কেউ ঠিকাদার সহ বিভিন্ন জনের কাছ থেকে আমার নাম করে টাকা তুলছে। কিন্তু আমি জোর গলায় বলছি ওই টাকা কোন দিন খাই না। অনুব্রত মণ্ডল যদি আমাকে ক্ষমতা দেয়। তাহলে বুঝে নেওয়ার ক্ষমতা আমার আছে। দেখিয়ে দেব স্বচ্ছতা কাকে বলে। তবে আমি ডিআইবি, সি আইডিকে ভয় পায় না। তুচ্ছ মনে করি। যতদিন বাঁচব মানুষের মধ্যে থাকব”। 

আরও পড়ুন-স্বামী বিবেকানন্দের জন্মদিনে রাস্তায় বিজেপির হেভিওয়েটরা, ১২ জানুয়ারি 'বিবেকের ডাক'

এদিকে জনসভায় বক্তব্য রাখতে গিয়ে অনুব্রত বলেন, “মিম বলে একটা দিল আসছে। ওই দল মীরজাফর, বেইমান। ওদের সঙ্গে বিজেপির মোটা টাকার চুক্তি হয়েছে। বিহারে ওরা ১৮ টি আসনে হারিয়েছে। তাই মিমকে একটিও ভোট দেবেন না”। উত্তরপ্রদেশের মুখ্যমন্ত্রী যোগী আদিত্যনাথকে তিনি ভণ্ড সাধু বলে কটাক্ষ করে বলেন, “উত্তরপ্রদেশে আইন বলে কিছু নেই। ওখানে মুসলিমদের গুলি করে মারা হচ্ছে। প্রতিদিন ধর্ষণ হচ্ছে। কিন্তু তুমি কোন ব্যবস্থা নিতে পারছ না। এমনকি ধর্ষিতার পরিবারকে মেয়ের মৃতদেহ দেখতে দিচ্ছ না”।