রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যাকে শুভেচ্ছা জানিয়ে চিঠি লিখলেন নোবেন জয়ী অর্থনীতিবিদ অমর্ত্য় সেন। তিনি বলেন, মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় তাঁকে সমর্থন করে যে চিঠি লিখেছেন তাতে তিনি খুবই খুশি হয়েছেন। মুখ্যমন্ত্রী তাঁর গুরুত্বপূর্ণ সময় বার করে তাঁকে যে সমর্থন করেছেন তাতে তিনি রীতিমত সম্মানিত বোধ করছেন। তিনি আরও বলেন, তাঁর সঙ্গে কী হচ্ছে তা নিয়ে মুখ্যমন্ত্রী রীতিমত ওয়াকিবহাল। তারই বিরুদ্ধে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় জোরালো প্রতিবাদ জানিয়েছেন। তারই পরিপ্রেক্ষিতে তিনি মুখ্যমন্ত্রীকে কৃতজ্ঞতা জানিয়ে চিঠি লিখছেন তিনি। 

দীর্ঘদিন ধরেই কেন্দ্রের শাসক দলের বিরুদ্ধে সরব হয়েছে অমর্ত্য সেন। একাধিক কাজকর্মের তীব্র প্রতিবাদ জানিয়েছেন। পাল্টা তাঁর বিরুদ্ধেও সরব হয়েছে বিজেপি। সম্প্রতি শান্তিনিকেতনে তাঁদের পৈত্রিক বাড়িতে একটি বিতর্ক শুরু হয়েছে। গেরুয়া শিবিরের একাংশের দাবি বিশ্বভারতী বিশ্ববিদ্যালয়ের জমি দখল করে তৈরি হয়েছে অমর্ত্য সেনের পৈত্রিক বাড়ি প্রতীচীর একাংশ। বিশ্বভারতী বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী হওয়ায় তা একটি আলাদা মাত্রা পেয়েছ। 

বিমান বন্দরের পরে এবার কি সত্যিই আদানিদের হাতে ভারতীয় রেল, ভাইরাল ছবি ঘিরে উঠছে প্রশ্ন ...

দলের জন্মদিনে উধাও নেতা, রাহুল গান্ধীকে নিয়ে কংগ্রেসের থেকে বেশি 'মাথাব্যাথা' বিজেপির ...

বিজেপির এই আক্রমণের পরই সরব হন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। পাল্টা পাশে থাকার বার্তা দিয়ে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় অমর্ত্য সেনকে চিঠি লিখেছিলেব। আর সেই চিঠিতে তিনি অমর্ত্য সেনকে 'অমর্ত্যদা 'বলে সম্বোধন করেন। তিনি বলেন অনুগ্রহ করে এদেশে আধিপত্যবাদের বিরুদ্ধে লড়াইয়ে তাঁকে বোন ও বন্ধু হিসেবে গণ্য করার আবেদন জানিয়েছিলেন। মমতার লেখা সেই চিঠিরই উত্তর দিলেন অমর্ত্য সেন। মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের ডাকে সাড়া দিয়ে অমর্ত্য সেনের পাশে থাকার দাবি জানিয়ে বাংলার বুদ্ধিজীবিরা প্রতিবাদ মিছিলও করেছিলেন।