কৃষি আইনের বিরোধিতায় নবান্ন অভিযানের ডাক দিয়েছিল বামেদের শ্রমিক সংগঠন।বিধানসভা ভোটের আগে এবার নবান্ন অভিযানের ডাক দিল বামেদের ছাত্র যুবরা। আগামী ১১ ফেব্রুয়ারি নবান্ন অভিযানের ডাক দেওয়া হয়েছে। অভিযানে থাকবেন বামেদের ছাত্র ও যুবর ১০টি সংগঠন। 

আরও পড়ুন-শুভেন্দুকে দাওয়াই দিতে রণকৌশল তৃণমূলের, টেক্কা দিতে মাঠে নামলেন অখিল গিরির ছেলে

বাম যুব ও ছাত্র সংগঠনের নবান্ন অভিযানে আমন্ত্রণ জানানো হয়েছে জোটসঙ্গী কংগ্রেসকেও। তাঁদের দুই শাখা সংগঠন যুব কংগ্রেস ও ছাত্র সংগঠন ছাত্র পরিষদ। এবার জমায়েতের ডাক দেওয়া হয়েছে কলেজ স্ট্রিট থেকে। সেখান থেকে এমজি রোড ধরে হাওড়া সেতু পেরিয়ে নবান্নের দিকে মিছিল নিয়ে যাওয়ার পরিকল্পনা নেওয়া হয়েছে। বামেদের দাবি, পুলিশ প্রশাসন বাধার সৃষ্টি করলে তার দায় সরকারকেই নিতে হবে।

আরও পড়ুন-রাজপথে দুর্ঘটনার কবলে রাজীব বন্দ্যোপাধ্য়ায়ের গাড়ি, এখন কেমন আছেন বনমন্ত্রী

শিক্ষা দাও, কাজ দাও, হাল ফেরাও, লাল ফেরাও-এই স্লোগানকে সামনে রেখে নবান্ন অভিযানের ডাক দিয়েছে বাম ছাত্র ও যুব সংগঠনগুলি। সেখানে আমন্ত্রণ জানানো হয়েছে অন্যান্য সহযোগী সংগঠনগুলিকে। সংগঠনগুলির তরফে, সিপিএম যুব সংগঠনের রাজ্য সম্পাদক সায়ন্তন মিত্র বলেন, তৃণমূল বা বিজেপি। কারোর কাছে কর্মসংস্থান নিয়ে আশা করা অর্থহীন। বরং সরকার বদলে  বাম-কংগ্রেস জোট সরকারকে ক্ষমতায় আনলে রাজ্যের সার্বিক উন্নয়ন হবে।