'জয় শ্রীরাম' বনাম 'জয় বাংলা' - চুম্বকে এটাই আসন্ন বিধানসভা নির্বাচনের আগে পশ্চিমবঙ্গের করুণ রাজনৈতিক চিত্র। একদিকে দিলীপ ঘোষের নেতৃত্বে চলছে রাম-রাজনীতি, অন্যদিকে মমতা শুরু করেছেন প্রাদেশিক রাজনীতি। এবার সেই লড়াই আরও একধাপ এগিয়ে নিয়ে গিয়ে এক ফেসবুক পোস্টে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের বিরুদ্ধে গ্রেটার বাংলাদেশ গঠনের অভিযোগ আনলেন বিজেপির রাজ্য সভাপতি।

ফেসবুকে এদিন একটি গ্রাফিক্স পোস্ট করেছেন দিলীপ ঘোষ। সেই গ্রাফিক্সে তিনটি ঘটনার ছবি রয়েছে। প্রথমটি, তৃণমূলের নির্বাচনী প্রচারে বাংলাদেশী অভিনেতা ফিরদৌসের উপস্থিতি, যা নিয়ে ২০১৯ সালে তীব্র বিতর্ক হয়েছিল। দ্বিতীয় ছবিটি মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় 'জয় বাংলা' স্লোগান দেওয়ার, যা 'ইসলামিক বাংলাদেশ'এর জাতীয় স্লোগান বলে উল্লেখ করেছেন দিলীপ। আর তৃতীয় ছবিটি ২০২০ সালে, বাংলাদেশী ক্রিকেটার সাকিব আল হাসান-এর কলকাতায় দূর্গাপূজো উদ্বোধনের ছবি। যা নিয়ে দেশের ইসলামি মৌলবাদীদের রক্তচক্ষুর সামনে পড়ে ক্ষমা চাইতে হয়েছিল সাকিব-কে।

এই তিনটি ছবি পোস্ট করে দিলীপ ঘোষ অভিযোগ করেছেন, মমতা বন্দ্যোপাধ্য়ায়, গ্রেটার বাংলাদেশ গঠনের লক্ষ্যে লড়াই করছেন। সেই কারণেই তাঁর মুখে 'ইসলামিক বাংলাদেশ'এর স্লোগান শোনা যাচ্ছে।

আরও পড়ুন - বুলেটের আঘাত নেই, প্রতিবাদী মৃত কৃষকের ময়নাতদন্তের রিপোর্ট প্রকাশ করল পুলিশ

আরও পড়ুন - ট্রাক্টর মিছিলের দিনই ইতালিতে খালিস্তানিদের ধুন্ধুমার, আক্রান্ত ভারতীয় দূতাবাস

আরও পড়ুন - রাম মন্দির আন্দোলনে যুক্ত হলেন শুভেন্দু, লক্ষাধিক টাকার অনুদান তুলে দিলেন VHP-র হাতে

স্বাভাবিকভাবেই তাঁর এই অভিযোগের তীব্র বিরোধিতা করেছে তৃণমূল। তৃণমূল নেতা কুনাল ঘোষের দাবি, একটা সময় দুই বাংলাই একসঙ্গে ছিল। তাই ভাষা, সংস্কৃতি, সাহিত্য - অনেক দিকেই দুই বাংলার দারুণ মিল রয়েছে। তাই স্লোগানেও মিল থাকাটা অবাক হওয়ার মতো বিষয় নয়। কিন্তু, পশ্চিমবঙ্গ ভারতের একটি অঙ্গরাজ্য আর বাংলাদেশ একটি পৃথক দেশ - তাই গ্রেটার বাংলাদেশ গঠনের অভিযোগ তোলাটা একেবারেই আকাশ কুসুম কল্পনা। কুনাল অভিযোগ করেন, আসলে বর্তমানে বিজেপি দলটি 'গ্রেটার তৃণমূল' হয়ে গিয়েছে। সেই হতাশারই বহিঃপ্রকাশ ঘটেছে দিলীপ ঘোষের এই ফেসবুক পোস্টে।