কয়েক মাস আগে স্বাস্থ্যসাথীর কার্ড নিয়ে বড়সড় ঘোষণা করেছিলেন মুখ্যমন্ত্রী। এবার রাজ্যবাসীর চোখের স্বাস্থ্য পরীক্ষায় নয়া উদ্যোগ নিল সরকার। চক্ষু পরীক্ষা নিয়ে সোমবার নবান্নে বড় ঘোষণা করলেন তিনি। সরকারি স্কুলের সমস্ত ছাত্রছাত্রীদের চক্ষু পরীক্ষা করা হবে বিনামূল্যে। এছাড়াও, ৮ লক্ষ ছাত্র-ছাত্রীকে বিনামূল্যে চশমা বিতরন করা হবে। নবান্ন থেকে ঘোষণা করেন মুখ্যমন্ত্রী।

আরও পড়ুন-নেতাজির জন্মজয়ন্তীতে শঙ্খধ্বনি-উলুধ্বনি, রাজ্য পালিত হবে 'দেশনায়ক দিবস', ঘোষণা মমতার

চোখের স্বাস্থ্য নিয়ে এদিন নবান্ন থেকে চোখের আলো নামে একটি প্রকল্পের ঘোষণা করেন মুখ্যমন্ত্রী। এই প্রকল্পের আওতায় রাজ্যের সর্বস্তরের মানুষ চোখের সমস্যা থেকে মুক্তি পাবেন। ২০২৫ সালের মধ্যে এই প্রকল্পের কাজ পুরোপুরি সম্পন্ন করা হবে। মমতার এই নতুন প্রকল্পের লক্ষ্য হল বয়স্তদের ছাবি অপারেশন করা। নবীন থেকে প্রবীণ সকলের জন্য চোখের চিকিৎসা ও অন্ধত্ব দূর করা। মুখ্যমন্ত্রীর ঘোষণা, ''এই প্রকল্পের আওতায় পাঁচ বছর ধরে সম্পূর্ণ বিনা মূল্যে চক্ষু অপারেশন করা হবে। বিনামূল্যে প্রদান করা হবে ৮ লক্ষ ২৫ হাজার চশমা''।

আরও পড়ুন-'মিমকে ভোট মানে, বিজেপির হাত শক্ত করা', বীরভূমের সভা থেকে ওয়েসিকে কটাক্ষ অনুব্রতর

মুখ্যমন্ত্রী আরও জানান, ''আমাদের লক্ষ্য হল ২০২৫ এর মধ্যে সকলের চোখের স্বাস্থ্যের যত্ন নেওয়া। ৩০০ জনের বেশি চোখের সার্জেন প্রায় ৪০০ জন অপটোমেট্রিক্স এই কাজে যুক্ত থাকবেন। মঙ্গলবার থেকেই এই চোখের আলো প্রকল্পের কাজ শুরু হবে। প্রথম পর্যায়ে ১২০০টি গ্রাম পঞ্চায়েত, শহরে ১২০টি প্রাথমিক স্বাস্থ্য কেন্দ্রে এই চালু হবে। ধাপে ধাপে গ্রাম ও শহরের অন্য়ান্য প্রাথমিক স্বাস্থ্য কেন্দ্রগুলিতে প্রকল্পের কাজ চালু হবে''। জানালেন মুখ্যমন্ত্রী।