হলদিয়ায় প্রধানমন্ত্রীর আক্রমণের জবাবে বহরমপুরে সুর আরও চড়া করলেন মুখ্যমন্ত্রী। তৃণমূলের দলত্যাগীদের একযোগে আক্রমণ করেন মমতা। তৃণমূলের দলত্যাগীরা দুর্নীতি করেছে বলে অভিযোগ করলেন মমতা। বিজেপি একটি কর্পোরেট সংস্থা বড়লোকদের স্বার্থ রক্ষার জন্য এসেছে বলে দাবি করলেন মুখ্যমন্ত্রী। 

আরও পড়ুন-'কখনও শুনেছেন প্রধানমন্ত্রীরা মিথ্যে কথা বলে' সরকারি কর্মীদের বেতন প্রসঙ্গে মোদীকে তোপ মমতার

তৃণমূল ছেড়ে বিজেপিতে যাওয়া মন্ত্রী বিধায়কদের উদ্দেশ্যে মুখ্যমন্ত্রী বলেন, ‘‘ সম্প্রতি তৃণমূল থেকে কিছু দুষ্ট গরু, বিজেপিতে চলে গিয়েছে। কী করবে? অনেক দুর্নীতি করেছে। এখন ভাবছে, যদি গরু চুরিতে ধরা পড়ে যাই। যদি দুর্নীতি ধরা পড়ে যাই। ওগুলো সব কালো কাদা"।  বিজেপির উদ্দেশ্যে মুখ্যমন্ত্রী বলেন, ''ভাজপা কোনমতেই সাধারণ মানুষের পার্টি নয়। বড়লোকদের পার্টি, জোতদারদের পার্টি, জমিদারদের পার্টি। গুজরাত বাংলা শাসন করবে না। বাংলাই বাংলা শাসন করবে। তৃণমূলই বাংলা শাসন করবে। দিল্লির বিরুদ্ধে প্রতিবাদ করবে। তৃণমূল থেমে থাকবে না"। 
আরও পড়ুন-দেবভূমিতে বিপর্যয়ের আঁচ পড়ল বাংলাতেও, পুরুলিয়ার দুই শ্রমিকের খোঁজ পাচ্ছে না পরিবার

মুখ্যমন্ত্রী আরও বলেন, "বিজেপি সব সময় কর্পোরেট সংস্থা থেকে শুরু করে বড়লোক মানুষদের স্বার্থরক্ষা করে এসেছে। আগামী দিনেও তাই করবে। তারা অতীতে নোটবন্দি করল, তারপর কোভিডে করল ঘরবন্দি। এখন অন্যান্যদের দলবন্দী করতে চাইছে। তাই বিজেপি দাঙ্গাবাজদের পার্টি। গুজরাত বাংলা শাসন করবে না। বাংলাই বাংলা শাসন করবে। তৃণমূলই বাংলা শাসন করবে। দিল্লির বিরুদ্ধে প্রতিবাদ করবে। বাংলাকে কিছু দেয় না। আমপানে কিছু দেয়নি। কোভিডে এত মানুষ মারা গেল, তাঁদের আমরা সাহায্য করলাম। কিন্তু কেন্দ্র একটাও টাকা দিল না"।