হলদিয়ার রাজনৈতিক সভা থেকে বাংলার শাসকদল তৃণমূলকে নিশানা করেছিলেন প্রধানমন্ত্রী। একাধিক ইস্যুতে তৃণমূল সরকারকে তোপ দাগেন মোদী। মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্য়ায়কে নিশানা করে মোদী বলেছিলেন, দেশের বিরুদ্ধে ষড়যন্ত্র চলছে। অথচ মুখ্যমন্ত্রী মমতা চুপ রয়েছেন। আবার, এ রাজ্যের সরকারি কর্মীদের সময়মতো মাইনে দেওয়া হয় না বলেও অভিযোগ করেছিলেন প্রধানমন্ত্রী। মঙ্গলবার বহরমপুরের সভা থেকে মোদীকে কড়া জবাব দিলেন মমতা বন্দ্যোপাধ্য়ায়।

আরও পড়ুন-দেবভূমিতে বিপর্যয়ের আঁচ পড়ল বাংলাতেও, পুরুলিয়ার দুই শ্রমিকের খোঁজ পাচ্ছে না পরিবার

বহরমপুর স্টেডিয়ামের সভা থেকে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীকে নিশানা করেন মমতা। তিনি বলেন, ''কখনও শুনেছেন প্রধানমন্ত্রীরা মিথ্যা কথা বলে। কখনও শুনেছেন মুখ্যমন্ত্রীরা মিথ্য়া কথা বলে। প্রধানমন্ত্রী সভায় দাঁড়িয়ে বলে যাচ্ছেন সরকারি কর্মীরা নাকি মাইনে পায় না। এ আবার কী উদ্ভট কথাবার্তা। কোন সরকারি কর্মচারী মাইনে পায়নি। দেখান মোদীবাবু। আপনি বিএসএনএল বিক্রি করে দিয়েছেন। সেল বিক্রি করে দিয়েছেন। রেলকে বিকেন্দ্রীকরণ করে দিচ্ছেন। আগামী দিনে ব্যাঙ্কের টাকা মানুষ পাবে না। জবাব দিন প্রধানমন্ত্রী''।

আরও পড়ুন-হু-হু করে নামছে পারদ, মাঘের শেষে কনকনে ঠাণ্ডায় কাঁপছে বাংলা

পাশাপাশি, লকডাউনের সময় পরিযায়ী শ্রমিক ইস্যুতে কেন্দ্রকে তীব্র ভর্ৎসনা করেন মুখ্যমন্ত্রী। তিনি বলেন, ''পরিযায়ী শ্রমিকদের জন্য মোদী সরকার একটাও রেলের ভাড়া দেয়নি। আমরা বাসে করে লোক এনেছি। সব আমরা করেছি, ওরা কিন্তু করেনি। আমরা স্নেহের পরশ প্রকল্পে   ৪ লক্ষ পরিযায়ী শ্রমিককে এক হাজার টাকা করে দিয়েছি। রাস্তায় কত পরিযায়ী শ্রমিক মারা গিয়েছেন, তাঁদের জন্য একবারও দয়া হয়নি মোদীবাবুর''।