রবিবার উত্তরাখণ্ডে বিপর্যয়। তার প্রভাব পড়ল বাংলাতেও। এ রাজ্য থেকে কাজ করতে গিয়ে প্রবল সমস্যার সম্মুখিন হয়েছেন তাঁরা। উত্তরাখণ্ডে কাজ করতে গিয়ে বিপর্যয়ের পর এখনও পর্যন্ত নিখোঁজ পুরুলিয়ার দুই জন শ্রমিক। বাড়িতে অভাব! তার উপর থাবা বসিয়েছে করোনা আবহ। রাজ্যের বিভিন্ন জায়গায় যথেষ্ট উপার্জন চেষ্টায় কাজ খোঁজার চেষ্টা হলেও সুফল মেলেনি। অগত্যা বাড়ি ছেড়ে ভিন রাজ্যে পাড়ি দিতে হচ্ছে বাংলার শ্রমিকদের। পূর্ব মেদিনীপুরের পর পুরুলিয়া জেলাতেও দুই জন শ্রমিক নিখোঁজ। উদ্বিগ্ন গোটা পরিবার।

আরও পড়ুন-রাজ্যের 'খেলসম্মান' অনুষ্ঠান, সম্মানিত হলেন মেহুলি ঘোষ-আতার আলি সহ অন্যরা

পুরুলিয়ার আড়শা থানার বাগনাডি গ্রামের দুই বাসিন্দা উত্তরাখণ্ডে কাজ করতে গিয়েছিলেন। ওই দুই শ্রমিকের নাম শুভংকর তন্তুবায় ও অশ্বিনী তন্তুবায়। ঠিকাদারি সংস্থার অধীনে কাজ করতে গিয়েছিলেন তাঁরা। যেখানে বিপর্য হয়েছে সেই তপোবন বিদ্যুৎ কেন্দ্রেই তাঁরা কাজ করতেন বলে আশঙ্কা করা হচ্ছে। কেননা, রবিবার ঘটনার পর থেকে খোঁজ মিলছে না তাঁদের। ঘটনার পর থেকে পরিবারের লোকেরা যোগাযোগ করার চেষ্টা করলেও খোঁজ মেলেনি তাঁদের। পরিবারের লোকেরা তাঁদের সঙ্গে যোগাযোগের চেষ্টা করলেও ব্যর্থ হয়। 
আরও পড়ুন-হু-হু করে নামছে পারদ, মাঘের শেষে কনকনে ঠাণ্ডায় কাঁপছে বাংলা

দুই শ্রমিকের হদিশ পেতে প্রশাসনের দ্বারস্থ গোটা পরিবার। প্রশাসনের তরফে উত্তরাখণ্ড সরকারের সঙ্গে যোগাযোগ করছে রাজ্য। পূর্ব মেদিনীপুর সহ পুরুলিয়ার দুই শ্রমিকদের বিষয়টি জানানো হয়েছে। সেখান থেকে কোনও তথ্য পেলে প্রশাসন পরিবারকে জানিয়ে দেবে। সোমবার পুরুলিয়ার জেলা তৃণমূল কংগ্রেস সভাপতি সুশান্ত মাহাতো ওই নিখোঁজ শ্রমিকদের পরিবারের সঙ্গে যোগাযোগ করেন। তাঁদের পরিবারের পাশে থাকার আশ্বাস দেন তিনি।