করোনার থাবায় থরহরি কম্প! কেন্দ্রের আচমকা লকডাউনের সিদ্ধান্তে দিশেহারা অবস্থা সাধারণ মানুষের। সবচেয়ে করুন অবস্থা হয়েছিল পরিযায়ী শ্রমিকদের। সেই তাঁদের ট্রেনে করে ফেরানোর ব্যবস্থা করা হলেও, কেন্দ্রীয় সরকার তাঁদের ভাড়া মকুব করেনি বলে দাবি মুখ্যমন্ত্রী। কিন্তু এ রাজ্যে বিধানসভা নির্বাচনের আগে তৃণমূল ছাড়াদের বিজেপিতে যোগদানের জন্য বিশেষ বিমানের ব্যবস্থা করেছিল বিজেপি। তা নিয়ে পরিযায়ী শ্রমিকদের প্রসঙ্গ তুলে বিজেপিকে একহাত দিলেন মমতা।

আরও পড়ুন-বিজেপির 'পরিবর্তন যাত্রার' সূচনা করতে বাংলা সফরে জেপি নাড্ডা, কথা বলবেন কৃষকদের সঙ্গেও

এদিন জনসভা থেকে কেন্দ্রের সমালোচনা করে মুখ্যমন্ত্রী বলেন, ''এক টাকা ট্রেন ভাড়া দিল না! হাঁটতে-হাঁটতে আসতে আসতে ১০০ জনেরও বেশি লোক মারা গেল। এক টাকা ট্রেন ভাড়া দিল না কেন্দ্র। ৩০০টি ট্রেন ভাড়া করে এনেছিলাম। চোরোদের ডাকাতদের সর্দারদের বড়বড় জেট প্লেনে করে নিয়ে গেল। ডাকাত সর্দারদের দিল্লি নিয়ে যাচ্ছে। বাংলাকে সামলাচে পারে না দিল্লি। বাংলার মাটি এত সস্তা। বাংলা না থাকলে স্বাধীনতা হত না। আমি লড়েছি, লড়ে যাব''। 

আরও পড়ুন-'আমরা সবাই নাগরিক, সিএএ-আরএসি করতে দেব না', জনসভা থেকে বিজেপিকে হুঁশিয়ারি মমতার

পাশাপাশি, তিনি আরও বলেন, ''এক কোটি সাইকেল দিয়েছি। করোনার আবহে লকডাউনের সময় ছাত্রছাত্রীদের অসুবিধা হচ্ছিল। তাঁদের লেখাপড়ার জন্য স্মার্ট ফোনের ব্যবস্থা করে দিয়েছে আমাদের সরকার''। একই জনসভায় দাঁড়িয়ে বিজেপিকে নিশানা করে অভিষেকের অভিযোগ,  ''মিথ্যা কথা বলে মানুষকে বিভ্রান্ত করতে চাইছে। মানুষ গড়ায় গন্ডায় বুঝিয়ে দেবে। এবার আড়াইশোর বেশি আসন নিয়ে ক্ষমতায় ফিরবে বিজেপি''।