২৩ জানুয়ারি কলকাতায় আসছেন মোদী। মূলত নেতাজী সুভাষ চন্দ্র বোসের (Netaji Subhas Chandra Bose) জন্মদিন উপলক্ষেই ঝটিকা সফরে কলকাতায় আসছেন ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী (Narendra Modi)। অনুষ্ঠানে অংশগ্রহন করার পর রাজভবনে রাজ্যপাল জগদীপ ধনকড়ের (Jagdeep Dhankhar) সঙ্গে বৈঠক করবেন মোদী। 

 

 

আরও পড়ুন, জামিন অযোগ্য গ্রেফতারি পরোয়ানার সংখ্যায় ঘুম উড়ল প্রশাসনিক কর্তাদের, কমিশনকে চিঠি অধীরের 

জানা গিয়েছে,  ২৩ জানুয়ারি বিকেল ৩ টেয় দমদম বিমান বন্দরে (Dumdum Airport)  এসে পৌছানোর কথা মোদীর। তারপর সেখান থেকে হেলিকপ্টারে আরসিটিসি ময়দানে যাবেন তিনি। জানা গিয়েছে, নেতাজির জন্মদিনে নেতাজির জন্মদিনে ভিক্টোরিয়া মেমোরিয়ালে নেতাজীকে নিয়ে নতুন গ্যালারির উদ্বোধন করবেন মোদী। অনুষ্ঠানে অংশগ্রহন করার পর রাজভবনে রাজ্যপালের সঙ্গে বৈঠক করবেন মোদী। সেখান থেকে বিজেপির রাজ্য নের্তৃত্ব প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে দেখা করে রাজ্যের রাজনৈতিক পরিস্থিতির কথা জানাবেন। এরপর দমদম আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর থেকে রাত ৮ টার বিমানে দিল্লি ফিরে যাবেন তিনি। যতোই এগিয়ে আসছে ভোট, ততোই  নেতাজী সুভাষ চন্দ্র বোসের জন্মদিনকে কেন্দ্র করে সরগরম হচ্ছে রাজ্য-রাজনীতি। নেতাজীর ১২৫ তম জন্মদিন সাড়ম্বরে পালন করতে চায় কেন্দ্র। ইতিমধ্য়েই নেতাজী সুভাষ চন্দ্র বোসের জন্মদিনকে পরাক্রম দিবস হিসেবে পালন করার কথা ঘোষণা করেছে কেন্দ্র। 

 আরও পড়ুন, সায়নী নয়, এবার ধর্মীয় ভাবাবেগে আঘাতের অভিযোগে তথাগত-র বিরুদ্ধে FIR হেয়ার স্ট্রিট থানায়  

 

 

অপরদিকে, যদিও আগেই ইচ্ছে প্রকাশ করেছিলেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী। এবার তাতে শিলমহর পড়ল। চলতি বছর থেকে নেতাজি নেতাজি সুভাষ চন্দ্র বসুর জন্মদিন অর্থাৎ ২৩ জানুয়ারিতে পালিত হবে পরাক্রম দিবস।  স্বাধীনতা সংগ্রামী নেতাজে এভাবেই শ্রদ্ধ জানান ও স্মরণ করার সিদ্ধান্ত নিয়েছে কেন্দ্রীয় সরকার। এদিকে পুরুলিয়ার (Purulia)হুটমূড়ায় ১৯ জানুয়ারি দুপুরে জনসভা ছিল মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোাপাধ্যায়ের (Mamata Banerjee)। সভার শেষে নেতাজির জন্মদিন-কে পরাক্রম দিবস বলে পালন করা নিয়ে প্রতিক্রিয়া দেন মুখ্যমন্ত্রী। সেখানে তিনি সরাসরি বিজেপি-কে আক্রমণ করেন।  । সাফ জানিয়ে দেন, বাঙালি-র ভাবধারা-কে সম্মান জানিয়েই দেশনায়ক দিবস বলে দিনটি-কে পালন করা যেতে পারত। কারণ বাঙালি নেতাজি-কে দেশনায়ক হিসাবে সম্মান করে এবং দেশনায়ক মানে হল দেশপ্রেমিক।  পরাক্রম শব্দটা কতটা নেতাজির দর্শনের সঙ্গে যায় তা নিয়ে সন্দেহ প্রকাশ করেছেন মুখ্যমন্ত্রী (CM)। সেই সঙ্গে এটাও পরিস্কার করেছেন যে বিধানসভা নির্বাচনের কথা মাথায় রেখেই নেতাজি-কে নিয়ে দরদ উতলে উঠেছে বিজেপি-র (BJP)। নেতাজির জন্ম দিনের দিন রাজ্য সরকার (State government) বিশেষ পরিকল্পনা গ্রহণ করেছে।