পঞ্চম দফার ভোট শেষ এবার রাজ্যে দোরগড়ায় ষষ্ঠ দফার ভোট এদিকে কম-বেশি পঞ্চম দফা শুরুর আগে এবং পরের মুহূর্তে হিংসার ঘটনা ঘটেছে। তবে এবার আরও একধাপ এগোল মুর্শিদাবাদে সপ্তম-অষ্টম দফা ভোটের আগেই উত্তপ্ত হয়ে উঠেছে সীমান্তের জেলা।

 

আরও পড়ুন, 'অনুপ্রবেশকারীরাই হল দিদির ভোটব্যাঙ্ক', আউশগ্রামে বিস্ফোরক অমিত শাহ 


  সাগরদিঘী বিধানসভা কেন্দ্রে দলীয় কর্মী সভায় যোগ দিয়ে বাড়ি ফেরার পরে সন্ধ্যায় দুষ্কৃতীরা জানালা দিয়ে ঐ তৃণমূল কর্মী গৌরাঙ্গ দাসকে লক্ষ্য করে এলোপাতাড়ি গুলি চালায়। ঘটনায় গুরুতর জখম হলেন তিনি। আশঙ্কাজনক অবস্থায় চিকিৎসার জন্য তাঁকে নিয়ে আনা হয়  মুর্শিদাবাদ মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে। সেখানেই চিকিৎসা শুরু হয়েছে তার। আর এই গুলি চালানোর ঘটনার পর থেকেই এলাকায় রাজনৈতিক চাপান উতোর শুরু হয়েছে। সূত্রের খবর, পেশায় ঠিকাদার ওই তৃণমূল কর্মী  সাগরদীঘিতে দলীয় সভায় যোগ দিতে যান। পরে সভাশেষে সন্ধ্যায় বাড়ি ফিরে আসেন । বাড়ি ফিরে রাত্রে তিনি বিছানায় যখন বিশ্রাম করছিলেন, তখনই জানলার বাইরে থেকে দুষ্কৃতীরা তাঁকে লক্ষ্য করে পরপর কয়েক রাউণ্ড গুলি চালায় বলে অভিযোগ। 

 

আরও পড়ুন, 'তুষ্টিকরণ দিয়ে বিকাশ হয় না-বিশ্বাসঘাতক তৈরি হয়'-আজ কাকে নিশানা করলেন অমিত শাহ 


আহত ওই তৃণমূল কর্মীর দাবি, প্রথম গুলি লক্ষ্যভ্রষ্ট হলেও দ্বিতীয় গুলিটি তাঁর বাঁ পায়ে লাগে। কে বা কারা গুলি চালিয়েছে, তার তদন্ত শুরু করেছে পুলিশ। ঘটনার পরই কংগ্রেস তৃণমূল চাপানউতোর শুরু হয়েছে। বিরোধীদের দাবি এটা তৃণমূলের অন্তর্দ্বন্দ্বের কারণ। যদিও শাসকদল তৃণমূল এই অভিযোগ অস্বীকার করেছে। তবে গুলিতে যখন তৃণমূল কর্মীর দাবি, তার উপর শত্রুতার বসেই তাকে প্রাণে শেষ করে ফেলতে এই ঘটনা কেউ ঘটিয়ে থাকতে পারে।