শুভেন্দুর দলত্যাগের পর তাঁর পরিবারের জন প্রতিনিধিদের ডানা ছাঁটতে শুরু করেছে তৃণমূল কংগ্রেস। রাতারাতি বদল করা কাঁথি পুরসভার প্রশাসক শুভেন্দুর ভাই সৌমেন্দুকে। এরপর, পূর্ব মেদিনীপুর জেলা সভাপতির পদ থেকে অপসারণ করা হল শুভেন্দু বাবা শিশির অধিকারীকে। যদিও, এই বিষয়ে তাঁর কোনও আফশোষ নেই বলে জানালেন বর্ষীয়ান এই রাজনীতিবিদ।

আরও পড়ুন-'রাজনৈতিক অশান্তি সত্বেও এত কম গ্রেফতারি কেন', রাজ্য়ের আইনশৃঙ্খলা নিয়ে ক্ষোভ সুদীপ জৈনের

পূর্ব মেদিনীপুর জেলা তৃণমূলের সভাপতির পদে আসীন হয়েছেন সৌমেন মহাপাত্র। কলকাতা থেকে চোখের চিকিৎসার পর নিজের বাসভবনে ফিরে নিজস্ব ভঙ্গিমাতেই রয়েছেন শুভেন্দুর বাবা শিশির অধিকারী। তিনি বলেন, ''২০০৬ সাল থেকে আমি কংগ্রেসের জেলা সভাপতি ছিলাম। এরপরে তৃণমূলে যোগ দিয়েছিলাম। এখন ২০২১। এতদিন তো আমিই টেনে নিয়ে এলাম। একটা সময় সিপিএম আমার উপর বোমা ছুঁড়েছে। আমি বেলের মত লুফে নিয়েছি। আমি সেই লোক। আবার সিপিএমের ছোঁড়া বোমা লুফতে গিয়ে হাত ঝলসে গিয়েছে''। 

আরও পড়ুন-চিটফান্ড মামলায় গ্রেফতার কেডি সিং, নারদ-কাণ্ডে কী প্রতিক্রিয়া জানালেন ম্যাথু

শিশির অধিকারীকে জেলা সভাপতির পদ থেকে অপসারণ করা হলেও, এখনও তাঁকে জেলা কমিটির চেয়ারম্যান করে রাখা হয়েছে। নাম কা ওয়াস্তে শিশিরকে রেখে দেওয়া হল কমিটির ক্ষমতাহীন সদস্য করে। এই প্রসঙ্গে তিনি বলেন, ''তৃণমূল যা অপমান করছে। তাতে এদের কাছে ফিরে যাওয়ার আর ইচ্ছা নেই। কাঁথি শহরে মাইক বাজিয়ে আমার পরিবারের আদ্যশ্রাদ্ধ করা হচ্ছে। এরকম হবে কোনও দিন ভাবিনি''।