করোনাভাইরাসের ভ্য়াকসিন দেওয়ার প্রক্রিয়া শুরু হচ্ছে এ রাজ্যে। এই ভ্যাকসিন বিনামূল্যে গোটা রাজ্যে প্রদান করা হবে বলে ঘোষণা করেছেন মুখ্যমন্ত্রী। মমতার এই ঘোষণাকে তীব্র কটাক্ষ করলেন বিজেপি নেতা শুভেন্দু অধিকারী। তাঁর দাবি, করোনা ভ্য়াকসিন বিনামূল্যে দেওয়ার জন্য ঘোষণা থেকেই ঘোষণা করেছিল কেন্দ্রীয় সরকার। মুখ্যমন্ত্রী সেটিকে হাইজ্যাক করে নিয়েছেন বলে অভিযোগ করলেন শুভেন্দু।

আরও পড়ুন-'আজই শ্রীরামপুরে যাব, কে কার হাত ভাঙে দেখি', কল্যাণের 'হুমকি'র জবাব দিলেন অর্জুন সিং

নন্দীগ্রাম-ঝাড়গ্রামে পর রবিবার পুরুলিয়ায় পদযাত্রা করেন শুভেন্দু অধিকারী। কাশীপুরের নপাড়া পেট্রোল পাম্প থেকে হাটতলা বাজার পর্যন্ত এদিন মিছিল করেন শুভেন্দু। মিছিল পদযাত্রা শেষে সভা করেন তিনি। সেখানে সভার শুরুতেই বিশৃঙ্খলা দেখা দেয়। তৃণমূলের পতাকা নিয়ে বিজেপির সভায় কয়েকজন অশান্তি ছড়ানোর চেষ্টা করে বলে অভিযোগ। নন্দীগ্রামের পর পুরুলিয়ায় শুভেন্দুর সভায় বিশৃঙ্খলার ছবি। এ নিয়ে পুলিশের বিরুদ্ধে ক্ষোভ উগরে শুভেন্দু। তিনি বলেন, ''পুলিশের অনুমতি নিয়ে সভা করতে এসেছি। অথচ, স্থানীয় কোনও পুলিশকে এখানে দেখা গেল না। এত সভা দেখে দিশেহারা হয়ে গিয়েছে তৃণমূল কংগ্রেস''।

আরও পড়ুন-বর্ধমানে বিজেপির পাল্টা রোড শোয়ে শক্তি প্রদর্শনে মরিয়া তৃণমূল, পুরুলিয়ায় মহামিছিলে শুভেন্দু

পাশাপাশি, রাজ্যে বিনামূল্যে করোনা ভ্য়াকসিন দেওয়ার মুখ্যমন্ত্রীর ঘোষণাকে তীব্র কটাক্ষ করেন শুভেন্দু। পুরুলিয়ার সভা থেকে তিনি বলেন, ''কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্য়মন্ত্রী দেশের তিরিশ কোটি মানুষকে বিনামূল্যে করোনা ভ্যাকসিন দেওয়ার ঘোষণা আগেই করেছেন। এখন মুখ্যমন্ত্রী বলছেন বিনামূল্যে করোনা ভ্য়াকসিন দেবেন। আবার না কেন্দ্রের প্রকল্পের নাম চুরি করেন মুখ্যমন্ত্রী। আমার আশঙ্কা, মুখ্যমন্ত্রী এর নাম আবার টিকাশ্রিী না দিয়ে দেন''। প্রসঙ্গত, পুরুলিয়া জেলায় ৯ বিধানসভা কেন্দ্র রয়েছে। গত লোকসভা ভোটে সব কেন্দ্রেই এগিয়ে ছিল বিজেপি। একুশের বিধানসভায় বিজেপি সব আসন দখল করবে বলে পুরুলিয়ার সভা থেকে দাবি করলেন শুভেন্দু অধিকারী।