বৃহস্পতিবার বিজেপির প্রার্থী তালিকা ঘোষিত হতে না হতেই জেলায় জেলায় বিক্ষোভ দেখা দিল। তারমধ্যে দলীয় সব পদ থেকে ইস্তফা দিলেন প্রয়াত বিশিষ্ট বিজেপি নেতা তপন শিকদারের ভাইপো সৌরভ শিকদার। এদিন প্রার্থী তালিকা ঘোষণার প্রায় ৩০ মিনিটের মধ্যেই সোশ্যাল মিডিয়ায় লাইভ ভিডিও করে দলীয় পদ ছাড়ার কথা ঘোষণা করেন সৌরভ। তিনি বিজেপির যুব মোর্চার সাধারণ সম্পাদক ছিলেন। সেইসঙ্গে আসানসোলের পর্যবেক্ষকও বটে। দুই পদই এদিন ছেড়ে দিয়েছেন তিনি।

আজীবন, বিজেপির সঙ্গেই যুক্ত সৌরভ। তিনি জানিয়েছেন, কাকা তপন শিকদারের হাত ধরেই বিজেপি করতে এসেছিলেন তিনি। তবে প্রার্থী না করাতেই তিনি ইস্তফা দিয়েছেন, তেমনটা মানছেন না সৌরভ। তাঁর দাবি, বিজেপির পুরোনো কর্মীদের কথা শুনছে না দল। উপরন্ত, পুলিশকে দিয়ে লাঠিচার্জ করিয়ে তাদের মুখ বন্ধ করে দেওয়া হচ্ছে। তারই প্রতিবাদ করে তিনি দল ত্যাগ করছেন। তিনি আরও জানান, এর আগের দিন যখন প্রার্থী তালিকা ঘোষণা করা হয়, সেইদিনই তিনি নির্বাচনী কার্যালয়ে গিয়ে এই পরিস্থিতি দেখেছিলেন তিনি। এই অবস্থায় কেন্দ্রীয় নেতৃত্ব যাতে কর্মীদের ক্ষোভের কথা শোনেন, পদত্যাগ করে সেই বার্তাই দিয়েছেন তিনি।

আরও পড়ুন - নকশাল দূর্গ ঝাড়গ্রাম এখন বিজেপির ঘাঁটি, কীভাবে জমি তৈরি করে দিয়েছে আরএসএস, দেখুন

আরও পড়ুন - 'ধর্ম'-যুদ্ধ, বিজেপির চক্রবূহে ফেঁসে গিয়েছেন মমতা - এবার দুই কূলই না হারাতে হয়

আরও পড়ুন - নামকরণ, অনুকরণ এবং নাকচ - কেন্দ্রীয় প্রকল্পগুলি নিয়ে কোন খেলায় মেতেছেন মমতা, দেখুন

এদিন, প্রার্থী তালিকা প্রকাশ হওয়ার পরই তিনি সোশ্যাল মিডিয়ায় একটি পোস্ট দিয়ে সৌরভ বলেন, তাঁর পদত্যাগ করা নিয়ে 'দয়া করে যেন কোনও নাটক তৈরি না করা হয়'। পশ্চিমবঙ্গের কোনও আসনে প্রার্থী হওয়ার জন্য তিনি আবেদনই করেননি, তাই প্রার্থী না হওয়ার জন্য তিনি পদ ছাড়লেন তা নয়। কিন্তু, যা ঘটছে, তার প্রতিবাদ করতেই হবে বলে জানান তিনি। শ্যামাপ্রসাদ মুখোপাধ্যায়ের দ্বারা অনুপ্রাণিত হওয়ায় যেই অন্যায় করুক তার প্রতিবাদ করবেন তিনি। তিনি আরও বলেন, তাঁর প্রয়াত কাকা তপন শিকদার দলের জন্য জীবন উৎসর্গ করেছিলেন। তিনি স্বপ্ন দেখতেন পার্টি ক্ষমতায় আসবে। তবে তা কখনই দলীয় কর্মীদের চোখের জলের বিনিময়ে নয়।