জনগণের কথা ভাবলেই মিলবে ভোট মানুষের, এমনটাই বললেন প্রাক্তন মন্ত্রী লক্ষীরতন শুক্লা। এদিকে দোরগড়ায় ভোট। নির্বাচনের নিঘন্ট প্রকাশের দিকে তাঁকিয়ে বাংলা। এদিকে এখনও  লক্ষীরতনের দলবদলের ইঙ্গিত ঘিরে জল্পনা। পদ্মের মুখে তাঁকেও কি দেখা যাবে, কী বলছেন তিনি, জেনে নেওয়া যাক।

আরও পড়ুন, 'মাছের তেলে মাছভাজা', 'তোমার ছেলেও তো আমার ভাতিজা', আজ ফুরফুরে মেজাজে মোদী-শাহকে খোঁচা মমতার  

 


 বৃহস্পতিবার প্রাক্তন মন্ত্রী লক্ষীরতন শুক্লা জানিয়েছেন, বাংলার মানুষের কথা তথা জনগণের কথা যাঁরা ভাববেন তাঁদেরকেই মানুষ ভোট দেবেন। আসন্ন বিধানসভা নির্বাচনে তাঁরাই জিতবেন। প্রাক্তন মন্ত্রীর কথায়, আমার দলের কাছে একটাই অনুরোধ হিংসা ছড়াবেন না। শুধু বাংলা নয়, সারা ভারতের জন্য আমার এই অনুরোধ। রাজনীতিতে শুধু আসনের লড়াই।  এরপর তিনি বলেন, আমি এখন যেখানে বসে আছি, একটু পরে অন্য কেউ এসে বসবেন।

আরও পড়ুন, 'এতদিন সোনার গুজরাট-রাজস্থান হয়নি কেন'- পৈলানের সভা থেকে প্রশ্ন তুললেন অভিষেক 

 

 

প্রসঙ্গত , জানুয়ারি মাসে তৃণমূল ছেড়েছেন লক্ষীরতন শুক্লা। পদ থেকেও ইস্তফা দিয়েছেন তিনি। দল বদলে ইঙ্গিতে বেড়েছে জল্পনাও। তৃণমূল ছেড়ে কি তিনি বিজেপিতে যাচ্ছেন, প্রশ্ন উঠেছে রাজনৈতিক মহলে। যদিও এবিষয়ে লক্ষীরতন শুক্লা জানিয়েছেন, এখনই কোনও দলে যোগ দেওয়ার ইচ্ছে নেই। যেখানে ছিলাম, সেখানেই আছি। তবে একই দৃশ্য ফিরবে রাজীবের ক্ষেত্রে। তার ক্ষেত্রেও দীর্ঘ সময় ধরে চলে তৃণমূলে থাকা নিয়ে দ্বন্দ্ব। শেষ অবধি তিনি চোখ ভিজিয়ে দল ছাড়েন। তবে লক্ষীরতম শুক্লা তাহলে শুভেন্দুকেই অনুসরণ করবে, বোঝা যাবে ভোটের নির্ঘন্ট আসার আগেই, অনুমান রাজনৈতিক মহলের।