বিতর্ককে তাঁর ছায়াসঙ্গী বলা হয়। বৃহস্পতিবার বাংলার ভোট প্রচারে করতে এসে ফের বিতর্ক বাধালেন উত্তরপ্রদেশের মুখ্যমন্ত্রী যোগী আদিত্যনাথ। তাঁর নিজের রাজ্যের মতো বাংলাতেও 'অ্যান্টি-রোমিও স্কোয়াড' গড়ার সুপারিশ করেছেন তিনি। যা নিয়ে সমালোচনায় সরব হয়েছেন বিরোধী দলের নেতা-নেত্রী থেকে শুরু করে বিশিষ্ট বুদ্ধিজীবীরাও।

এদিন হুগলীর চাঁপদানি বিধানসভা কেন্দ্রে বিজেপি প্রার্থীর সমর্থনে জনসভা করেন যোগী আদিত্যনাথ। সেখানে বিভিন্ন বিষয়েই তিনি রাজ্য সরকারের তুমুল সমালোচনা করেন। কথা প্রসঙ্গে আসে মহিলাদের নিরাপত্তার বিষয়টি। এইবারের নির্বাচনে নারী-সুরক্ষা নিয়ে তৃণমূলের বিরুদ্ধে সুর চড়িয়েছে বিজেপি। বাংলা মেয়ে হয়ে মমতা নিজেই বাংলার মেয়েদের সুরক্ষা দিতে পারছেন না, এই প্রচারই করছেন বিজেপি নেতারা। এদিন যোগী আদিত্যনাথ বলেন, মা-বোনেদের নিরাপত্তা নিশ্চিত করবে বিজেপি সরকার। বাংলায় বিজেপির সরকার হলে, উত্তপ্রদেশের মতো বাংলাতেও অ্যান্টি-রোমিও স্কোয়াড তৈরি করা হবে। তৃণমূলের সব রোমিওকে জেলে পোরা হবে বলেও রীতিমতো হুমকি দেন তিনি।

 

যোগীর এই সুপারিশ ঘিরেই রাজ্যে রাজনীতিতে তীব্র বিতর্কের ঝড় উঠেছে। তৃণমূল কংগ্রেস সাংসদ  সৌগত রায়, যোগীর এই মন্তব্যের কড়া সমালোচনা করে বলেছেন, উত্তরপ্রদেশের মতো বিজেপি শাসিত রাজ্যগুলির থেকে বাংলা নারী-সুরক্ষায় অনেক এগিয়ে রয়েছে। তাই উত্তরপ্রদেশের মুখ্যমন্ত্রীর এই সুপারিশ করা সাজে না। ব্যঙ্গ করে তিনি বলেন, 'যোগী নিজেকে সাধু বলেন। সাধুরা গাঁজা খান বলে শোনা যায়। যোগীও সম্ভবত গাঁজায় দম দিয়েই এই রাজ্যে বিজেপি সরকার গঠনের স্বপ্ন দেখছেন এবং এই ধরণের মন্তব্য করছেন'।সিপিএম-এর রাজ্য সম্পাদক সূর্যকান্ত মিশ্র বলেছেন, উত্তরপ্রদেশের এই স্কোয়াড গড়ার পরেও যেভাবে নারীদের উপর হামলা হচ্ছে, তাতে সেই রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রীর বাংলায় এসে এই মন্তব্য করার কোনও অধিকার নেই।

"

অন্যদিকে উত্তরপ্রদেশের মুখ্যমন্ত্রীর এই মন্তব্যে অন্য বিপদের আভাস পাচ্ছে বাংলার বুদ্ধিজীবীদের একাংশ। সাহিত্যিক শীর্ষেন্দু মুখোপাধ্যায় বলেছেন, যোগী আদিত্যনাথ যদি এই স্কোয়াড গঠনের মাধ্যমে ইভ টিজারদের শায়েস্তা করতে চান, তাহলে স্বাগত। কিন্তু, এই স্কোয়াড যদি বাংলার প্রেমিক-প্রেমমিকাদের হেনস্থা করার কাজে ব্যবহার করা হয়, তাহলে সেটা ঠিক হবে না। কারণ, বাংলার ঐতিহ্য শ্রীকৃষ্ণ ও রাধার প্রেম। চিত্র পরিচালক তরুণ মজুমদার আবার জানতে চেয়েছেন, রোমিও বলতে যোগী ঠিক কাদের কথা বলতে চাইছেন। কারণ শেক্সপিয়ারের থিয়েটারের রোমিও, নিখাদ প্রেমের প্রতীক।

আরও পড়ুন - বঙ্গের কোন কোন কেন্দ্রে সহজে জিতবে বিজেপি, কোথায় লড়াই কঠিন - কী বলছে দলের গোপন বিশ্লেষণ

আরও পড়ুন - 'তৃণমূলকে ভোট না দিলে উচ্ছেদ' - প্রচারে বেরিয়ে হুমকি গৌতম দেবের, ভাইরাল হল ভিডিও

আরও পড়ুন - কৃষি না শিল্প - একদশক পর নির্বাচনে ফিরে এল পুরোনো প্রশ্ন, কী বলছে সিঙ্গুর

২০১৭ সালে উত্তরপ্রদেশে ক্ষমতায় এসেই অ্যান্টি রোমিও স্কোয়াড তৈরি করেছিলেন যোগী আদিত্যনাথ। বিজেপির নির্বাচনী ইস্তাহারেই এই স্কোয়াড গঠনের প্রতিশ্রুতি ছিল। তবে, তাতে করে গত ৪ বছরে উত্তরপ্রদেশে নারী-সুরক্ষার ছবিতে বিশেষ বদল আসেনি। বরং অ্যান্টি রোমিও স্কোয়াডের বিরুদ্ধে নিরপরাধ মানুষদের হেনসস্থা করার অভিযোগ উঠেছে।