কৌশিক সেন, রায়গঞ্জ:   ভরদুপুরে কাজ করতে গিয়েছিলেন চাষের জমিতে। আচমকাই আকাশ কালো করে মুষলধারায় বৃষ্টি নামল। বজ্রপাতে প্রাণ গেল তিন মহিলা। গুরুতর আহত আরও ১২ জন। মর্মান্তিক ঘটনাটি ঘটেছে উত্তর দিনাজপুরের রায়গঞ্জের জগদীশপুর গ্রামে পঞ্চায়েতে।

আরও পড়ুন:বিবাহ বর্হিভূত সম্পর্কের পরিণতি, স্বামীকে 'খুন করে মাটিতে পুঁতে দিল' স্ত্রীর প্রেমিক

সকলেই জগদীশপুর পঞ্চায়েতের কোকরাটুলির নুনিয়া গ্রামের বাসিন্দা। রোজকার মতোই জমিতে ধান লাগানোর কাজ করতে গিয়েছিলেন ৩৫ জন। কিন্তু এমন বিপর্যয় যে ঘটবে, তা কে জানত! জমিতে যখন ধান লাগানোর কাজ চলছে, আচমকাই শুরু হয় তুমুল বৃষ্টি। কালো মেঘে ঢেকে গিয়েছিল আকাশ। মনে হচ্ছিল, যে সন্ধে নেমেছে! দুর্যোগে হাত থেকে বাঁচতে নিরাপদ জায়গার যাওয়ার সুযোগ মেলেনি। চোখের পলকে তিনজনের প্রাণ কেড়ে নেয় বজ্রপাত। গুরুতর আহত হন আরও বারোজন। স্থানীয় বাসিন্দারা সকলকেই উদ্ধার করে প্রথমে নিয়ে যান স্থানীয় মহারাজা ব্লক প্রাথমিক স্বাস্থ্য কেন্দ্রে। সেখানে শোভা বর্মন, মান্ডা বর্মন ও চুম্পা বর্মনকে মৃত বলে ঘোষণা করেন চিকিৎসকরা। আহতেরা মহারাজ ব্লক প্রাথমিক স্বাস্থ্য কেন্দ্র ও রায়গঞ্জ মেডিক্যাল কলেজে চিকিৎসাধীন। এলাকায় শোকের ছায়া। মৃতদেহগুলি উদ্ধার করে ময়নাতদন্তে পাঠিয়েছে পুলিশ। 

আরও পড়ুন: পুরুষাঙ্গ কাটা অবস্থায় পড়ে বাবা, পাশে গলা কাটা অবস্থায় মেয়ে, নৃশংস হত্য়াকাণ্ড সোনারপুরে

উল্লেখ্য, ইদানি কিন্তু ঝড়-বৃষ্টি হলেই বজ্রপাতের প্রবণতা বাড়ছে। ঘটছে প্রাণহানির,ঘটনাও। দিন কয়েক মুর্শিদাবাদে বজ্রপাতে মারা যান মহিলা-সহ ছ'জন। আহত হন দু'জন। সেই ঘটনার পুনরাবৃত্তি ঘটল উত্তর দিনাজপুরের রায়গঞ্জে।