এ রাজ্যে করোনার আতঙ্ক উত্তরোত্তর বাড়ছে। যতদিন দিন যাচ্ছে, করোনা সন্দেহে রোগীদের ভিড় বাড়ছে হাসপাতালে। সেই তালিকা বাদ গেলেন না চিকিৎসকও! বাঁকুড়ার সম্মিলনী মেডিক্যাল কলেজে ও হাসপাতালের আইসোলেশন ওয়ার্ডে ভর্তি তিনি। 

আরও পড়ুন: করোনা আতঙ্কে শুনসান ডুয়ার্স, বিপুল ক্ষতির মুখে পর্যটন ব্যবসা

ওই চিকিৎসকের নাম বিশ্বজিৎ মণ্ডল। এদেশে ছিলেন না তিনি। ইংল্যান্ড থেকে ফিরেছেন বৃহস্পতিবার। কুষ্ঠ হাসপাতালে ক্যাম্প করতে রবিবার বাঁকুড়ায় আসেন ওই চিকিৎসক। উঠেছিলেন বাঁকুড়া শহরের একটি হোটেলে। বিপত্তি ঘটে সোমবার। জানা গিয়েছে, সকালে আচমকাই জ্বর আসে বিশ্বজিতের। সঙ্গে গলা ব্যাথা। তড়িঘড়ি তাঁকে ভর্তি করা হয় বাঁকুড়া  সম্মিলনী মেডিক্যাল কলেজে আইসোলেশন ওয়ার্ডে। কুষ্ঠ হাসপাতালে ক্যাম্প করতে এসে কী করোনায় আক্রান্ত হলেন? এখনই নিশ্চিত করে কিছু বলতে পারছেন না চিকিৎসকরা। পরীক্ষার করা জন্য় রোগীর শরীর থেকে নমুনা সংগ্রহ করা হয়েছে বলে খবর। এদিকে বিশ্বজিতের সঙ্গে আরও বেশ কয়েকজন চিকিৎসক এসেছেন বাঁকুড়ায়। তাঁদের উপরও নজর রাখা হচ্ছে।

আরও পড়ুন: আইসোলেশন ওয়ার্ডে তালা, 'করোনা আক্রান্ত'কে আতঙ্ক ছড়াল হাসপাতালে

উল্লেখ্য, এ রাজ্যে এখনও পর্যন্ত কেউ করোনায় আক্রান্ত হননি। তবে সংক্রমণ ঠেকাতে সতর্ক প্রশাসন। পরিস্থিতি মোকাবিলায় ২০০ কোটি টাকার তহবিল তৈরি করার কথা ঘোষণা করেছেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। সোমবার নবান্নে প্রশাসনিক আধিকারিকদের সঙ্গে বৈঠক করেন তিনি। বৈঠকে ৩১ মার্চের পরিবর্তে ১৫ এপ্রিল পর্যন্ত রাজ্যের সমস্ত স্কুল, কলেজ ও বিশ্ববিদ্যালয় বন্ধ রাখার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে।  বস্তুত, করোনা সংক্রমণ ঠেকাতে অনির্দিষ্টকালের জন্য স্থগিত হয়ে যাচ্ছে রাজ্য বিধানসভার বাজেট অধিবেশনও।