দ্বৈপায়ন লালা, মালদহ:  ছেলেকে বাঁচাতে গিয়ে আক্রান্ত হলেন বাবা। রড দিয়ে মেরে প্রৌঢ়ের মাথা ফাটিয়ে দিল সিভিক ভলান্টিয়ার! ঘটনাটি ঘটেছে মালদহের ইংরেজবাজারে। তদন্তে নেমেছে পুলিশ।

আরও পড়ুন: তৃণমূলের গোষ্ঠী কোন্দলের ঘিরে বোমাবাজি-উত্তেজনা, পরিস্থিতি সামাল দিতে পুলিশের ধরপাকড়

জানা গিয়েছে, আক্রান্তের নাম পুতুল রবিদাস। বাড়ি, ইংরেজবাজার থানার মোহনপুর গ্রামে। বৃহস্পতিবার সকালে রাস্তায় দিয়ে যাওয়ার সময়ে থুতু পেলেন তাঁর ছেলে বিশ্ব। আর তাতেই ঘটে বিপত্তি। স্থানীয় বাসিন্দাদের দাবি, সামান্য এই ঘটনাকে কেন্দ্র করে ওই যুবকের সঙ্গে সন্তোষ রবিদাস নামে একজনের বচসা বেঁধে যায়। সন্তোষ আবার পেশায় সিভিক ভলান্টিয়ার। বচসা গড়ায় হাতাহাতিতে।  বিশ্বকে, ওই সিভিক ভলান্টিয়ার ও তাঁর এক সঙ্গী রীতিমতো মারধর করতে শুরু করেন বলে অভিযোগ।

আরও পড়ুন: লক্ষ্মী পুজোয় পদ্মের টান, বাজারে তাই ভিন্ন রাজ্য থেকেই আসছে পদ্ম, দামের ঠেলায় নাজেহাল

এদিকে খবর পেয়ে ছেলেকে বাঁচানোর জন্য ঘটনাস্থলে যান পুতুল রবিদাসও। ওই প্রৌঢ়কেও রেয়াত করেনি অভিযুক্ত সিভিক ভলান্টিয়ার। রড দিয়ে মেরে সে পুতুলের মাথা ফাটিয়ে দেয় বলে অভিযোগ। এমনকী, বাড়িতে চড়াও হয়ে মারধর করে পরিবারের অন্য সদস্যদেরও। পুতুল রবিদাস ও তাঁর ছেলে বিশ্ব ভর্তি মালদহ মেডিক্যাল কলেজ ও হাসপাতালে। লিখিত অভিযোগ দায়ের করা হয়েছে থানায়। তদন্তে নেমেছে পুলিশ।