আশিষ মণ্ডল, বীরভূম:  শক্র দেশের হামলার নয়, জম্মুতে দুর্ঘটনায় প্রাণ হারালেন এক বাঙালি জওয়ান। ঘটনায় শোকের ছায়া নেমেছে বীরভূমের নলহাটিতে। মৃতদেহ গ্রামে ফেরার অপেক্ষায় পরিজনেরা।

আরও পড়ুন: নেশা করা নাপসন্দ, ধারালো অস্ত্রের কোপে স্ত্রীকে 'খুন' করল স্বামী

মৃত জওয়ানের নাম শ্রীকৃষ্ণ মণ্ডল। বাড়ি, নলহাটির কলিঠা গ্রামে। অভাবের সংসারে আর পড়াশোনা শেষ করতে পারেননি। তখন রামপুরহাট কলেজে বিজ্ঞান বিভাগের দ্বিতীয় বর্ষের ছাত্র ছিলেন শ্রীকৃষ্ণ। ২০১২ সালে চাকরি পেয়ে যান সেনাবাহিনীতে। জম্মুতে ইলেকট্রিক্যাল টেকশিয়ান পদে কাজে যোগ দেন তিনি। পরিবারের লোকেরা জানিয়েছেন, এবছর সরস্বতী পুজোর সময়ে শেষবার বাড়ি এসেছিলেন শ্রীকৃষ্ণ। মাস দুয়েক আগেও ছুটি পেয়েছিলেন, লকডাউনের কারণে সেবার আর গ্রামে আসতে পারেননি তিনি। শনিবার কফিনবন্দি হয়ে ফিরবেন ওই জওয়ান।

আরও পড়ুন: গাঙ্গেয় পশ্চিমবঙ্গ-উড়িষ্যা উপকূলে নিম্নচাপের শক্তি বাড়ছে, সমুদ্র সৈকতে সর্তকতা জারি

জানা গিয়েছে, বুধবার রাতে কাজ করার সময়ে বিদ্যুৎপৃষ্ট হন শ্রীকৃষ্ণ এবং ঘটনাস্থলেই মারা যান। শুক্রবার এক সহকর্মী ফোনে ছেলের মৃত্যুসংবাদ জানাতে পারেন পরিবারের লোকেরা। ঘটনাটি জানাজানি হতেই শোকের ছায়া নামে এলাকায়। মৃতের দাদা রামকৃষ্ণ মণ্ডল জানিয়েছেন, 'শনিবার মৃতদেহ নিয়ে সেনাবাহিনী লোকজন গ্রামে আসবেন। আমার কফিনের অপেক্ষায় আছি।' মাস দুয়েক আগে দিল্লিতে বদলি হওয়ার নির্দেশ পেয়ে গিয়েছিলেন শ্রীকান্ত। কিন্তু লকডাউনের কারণে নতুন জায়গায় গিয়ে কাজে যোগ দিতে পারেননি তিনি।