অতিরিক্ত টেনশনেই কি ঘটল বিপত্তি? মাধ্যমিকের দ্বিতীয় দিনেই অসুস্থ হয়ে পড়ল এক ছাত্রী। পরীক্ষকেন্দ্রে নয়, হাসপাতালে বসে ইংরেজি পরীক্ষা দিল সে। ঘটনাটি ঘটেছে নদিয়ার রানাঘাটে।

আরও পড়ুন: মাধ্যমিক পরীক্ষার মাঝেই মাইক বাজিয়ে অনুষ্ঠান, বিতর্কে খোদ রাজ্যের মন্ত্রী

রানাঘাটের নাসড়া গার্লস হাইস্কুলের ছাত্রী রাখি রায়। মাধ্যমিক তার সিট পড়েছে বিধানচন্দ্র শিক্ষায়তন স্কুলে। সোমবার বাংলা পরীক্ষা দেওয়ার পরেই অসুস্থ হয়ে পড়ে রাখি। পরিবারের লোকেরা জানিয়েছেন, বুক ও পেটের ব্যথ্যায় কষ্ট পাচ্ছিল সে। সঙ্গে বমিও হচ্ছিল।  বুধবার সকালে ওই মাধ্যমিক পরীক্ষার্থীর শারীরিক অবস্থার আরও অবনতি হয়।  শেষপর্যন্ত রাখিকে যখন রানাঘাট মহকুমা হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়, তখন ইংরেজি পরীক্ষা শুরু হতে আর বেশি দেরি নেই।  যে স্কুলে মেয়ের সিট পড়েছে, সেই স্কুলের প্রধান শিক্ষকের সঙ্গে যোগাযোগ করেন পরিবারের লোকেরা। মধ্যশিক্ষা পর্ষদের অনুমতি সাপেক্ষে হাসপাতালে বসেই পরীক্ষা দেয় রাখি।  

আরও পড়ুন: বিপদে বন্ধু পুলিশ, পরীক্ষাকেন্দ্রে ছাত্রীর অ্য়াডমিট কার্ড পৌঁছে দিলেন এএসআই

আরও পড়ুন: পড়াশোনায় ভাল হওয়ায় ঈর্ষা, মাধ্যমিক পরীক্ষার্থীর কান কাটল দুই ভাই

কিন্তু মাধ্যমিক তো সবে শুরু হল। বাকি পরীক্ষাগুলিও কি হাসপাতাল বসেই দিতে হবে? জানা গিয়েছে, আপাতত রাখীকে পর্যবেক্ষণে রাখবেন চিকিৎসকরা। যদি সে সুস্থ হয়ে ওঠে, তাহলে তো কথাই নেই। তা না হলে, বাকি পরীক্ষাগুলিও হাসপাতালে বসে দেওয়ার বন্দোবস্ত করা হবে। এর আগে মঙ্গলবারও শান্তিপুর নৃসিংহপুর হাইস্কুলের পরীক্ষা চলাকালীনই অসুস্থ হয়ে পড়েছিল এক মাধ্যমিক পরীক্ষার্থী।  তাঁকেও শান্তিপুর হাসপাতালে ভর্তি করতে হয়। প্রাথমিক চিকিৎসার পর হাসপাতালে বসেই পরীক্ষা দেয় সে।