Asianet News Bangla

করোনা সংক্রমণের এবার ছোবল পুলিশ মহলেও, আতঙ্কে পারদ চড়ল রামপুরহাটে

  • করোনার হাত থেকে রেহাই নেই পুলিশকর্মীদের
  • সংক্রমিত হলেন সাব ইন্সপেক্টর ও তাঁর স্ত্রী
  • থানা জীবাণুমক্ত করার কাজ চলছে
  • আতঙ্কের পারদ চড়ল রামপুরহাটে
A sub inspector and his wife tested Corona positive in Rampurhat BTG
Author
Kolkata, First Published Aug 20, 2020, 7:28 PM IST
  • Facebook
  • Twitter
  • Whatsapp

আশিস মণ্ডল, বীরভূম: এবার করোনা আক্রান্ত হলেন রামপুরহাট থানার এক সাব ইনস্পেক্টর। আক্রান্ত হয়েছেন তাঁর স্ত্রীও। রেহাই পাননি বেসরকারি ব্যাঙ্কের কর্মী। ব্যাঙ্ক ও থানা স্যানিটাইজ করা কাজ চলছে পুরসভার তরফে।

আরও পড়ুন: দিনে খালাসি-রাতে সুপারি কিলার, বাংলায় ধরা পড়ল বিহারের 'ডন'

দিন দিন রামপুরহাট মহকুমা জুড়ে করোনা আক্রান্তের সংখ্যা বাড়ছে। বিডিও অফিস, স্বাস্থ্যকর্মীরা আক্রান্ত হয়েছিলেন। এবার প্রথম আক্রান্ত হলেন এক পুলিশ অফিসার। রামপুরহাট থানার ওই পুলিশ অফিসার থানা সংলগ্ন একটি লজে সস্ত্রীক থাকতেন। সোমবার তিনি সিউড়ি গিয়েছিলেন। ফিরে এসে তিনি অসুস্থ হয়ে পড়েন। প্রথমে চিকিৎসকের পরামর্শে ওষুধ খেয়ে বাড়িতেই ছিলেন। কিন্তু তাতেও কাজ না হওয়ায় জেলা পুলিশের পরামর্শে ভর্তি হন রামপুরহাট মেডিক্যাল হাসপাতালে। বুধবার সন্ধ্যার দিকে করোনা পজিটিভ রিপোর্ট আসে। এরপর করোনা আক্রান্ত পুলিশ আধিকারিককে ভর্তি করা হয় কোভিড হাসপাতালে।  সংক্রমিত হয়েছেন স্ত্রীও, তাঁকে রাখা হয়েছে তারাপীঠ লাগোয়া আইসোলেশন সেন্টারে।

আরও পড়ুন: আমফান ও করোনার পর নতুন বিপদ, বাঁধ ভেঙে প্লাবিত সাগরের বিস্তীর্ণ এলাকা

এদিকে রামপুরহাট বাসস্ট্যান্ড লাগোয়া একটি বেসরকারি ব্যাঙ্কে কর্মরত দু'জনের করোনা সংক্রমণ ধরা পড়েছে। ব্যাঙ্কটি আপাতত বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে। শহরের ১ নম্বর ওয়ার্ডে এক অন্তঃস্বত্ত্বা মহিলাও করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন বলে খবর।  পুরসভার বিভাগীয় বাস্তুকার ডালটন চট্টোপাধ্যায় বলেন, 'রামপুরহাট শহরে বেশ কয়েকটি ওয়ার্ডে করোনা ধরা পড়ায় নিয়ম করে সমস্ত ওয়ার্ড স্যানিটাইজ করা হচ্ছে। বেসরকারি ব্যাঙ্ক এবং থানাও স্যানিটাইজ করা হয়েছে।' নলহাটি ২ নম্বর ব্লক অফিসের এক কর্মী আক্রান্ত হওয়ার খবর মিলেছে। তিনি ব্লকের ক্লার্ক পদে কর্মরত জানা গিয়েছে। বৃহস্পতিবার রামপুরহাট স্বাস্থ্য জেলা হাসপাতালে ৯ জন আক্রান্ত হয়েছে।

Follow Us:
Download App:
  • android
  • ios