ফেসবুক লাইভ করতে গিয়ে নদীতে পড়ে কিশোরের মৃত্যু। গঙ্গার ছায়া এবার জলঙ্গিতে। বন্ধুদের সঙ্গে ব্রিজের ওপর দাঁড়িয়ে ফেসবুক লাইভের ভিডিও তৈরি করতে গিয়ে গভীর নদীতে প্রাণ হারাল এক কিশোর।

 

 

আরও পড়ুন, ফ্লেক্স ছেঁড়া নিয়ে উত্তাল চেতলা, হামলায় আক্রান্ত BJP প্রার্থী রুদ্রনীল, কাঠগড়ায় ফিরহাদ 

 

 

 

স্মৃতি এখনও তাজা। মাস দুয়েক আগে দ্বিতীয় হুগলি সেতুর ওপর থেকে গঙ্গায় ঝাঁপ দেওয়ার লাইভ ভিডিও শুট করতে গিয়ে মৃত্যু হয় একজনের। এবার সেই মরণ নেশায় বুদ হয়ে সোশ্যাল মিডিয়ার মাধ্যমে বন্ধুদের সঙ্গে ফেসবুক লাইভে বিপজ্জনকভাবে বাঁশের ব্রিজের ওপর দাঁড়িয়ে ভিডিও করতে গিয়ে গভীর জলঙ্গি নদীতে পড়ে মর্মান্তিকভাবে মৃত্যু হল কিশোরের। বছর সতেরোও মৃত ওই কিশোরের নাম রিপন মন্ডল । বৃহস্পতিবার এই ঘটনায় মুর্শিদাবাদের মুক্তারপুর এলাকায় ব্যাপক চাঞ্চল্য ছড়িয়ে পড়ে। তড়িঘড়ি বিশাল পুলিশবাহিনী ঘটনাস্থলে এসে স্থানীয়দের সহযোগিতায় ওই মৃতদেহ উদ্ধার করে।মৃতার পরিবারের পাশে সহযোগিতার হাত বাড়িয়ে দেওয়ার জন্য এগিয়ে আসেন স্থানীয় তৃণমূলের বিদায়ী বিধায়ক তথা এবারের প্রার্থী মমতাজ হোসেন। 

আরও পড়ুন, একদিনে আক্রান্ত ২৮০০ ছুঁইছুঁই, কোভিড-চিকিৎসায় হাসপাতাকেগুলিকে জরুরী নির্দেশ নবান্নের 

 

 

এলাকা সূত্রে জানা যায়, রিপন তার কয়েকজন বন্ধুদের সঙ্গে জলঙ্গী নদীর ওপর একটি বাঁশের ব্রিজে দাঁড়িয়ে ওই বিপদজনক ভিডিও রেকর্ড করছিল। আচমকা কোনভাবে পা হড়কে ব্রিজ থেকে সরাসরি নদীর জলে পড়ে যায় রিপন। তারপরেই তার বন্ধুরা চেঁচামেচি শুরু করলে স্থানীয় মানুষজন বেশ কিছুক্ষণ পর ঘটনাস্থলে আসে। ততক্ষণে মর্মান্তিকভাবে মৃত্যু ঘটে ওই কিশোরের। খবর পেয়ে মৃতের পরিবারের সদস্যরা এসে রিপনের মৃতদেহ উদ্ধার করে কান্নায় ভেঙে পড়ে। এলাকার এক বাসিন্দা বাপন মন্ডল, সপন বিশ্বাসেরা বলেন,'এই ঘটনা প্রচন্ড মর্মান্তিক এইভাবে কিশোররা বিভিন্ন সময়ে বিপদজনক ভিডিও তৈরি করতে গিয়ে মৃত্যুর কোলে ঢলে পড়ছে। কোনোভাবেই তা মেনে নেয়া যায়না। সামাজিক সচেতনতা বৃদ্ধি করা দরকার।'

 

আরও দেখুন, Election Live Update- রাত পেরোলেই রাজ্যে চতুর্থ দফার ভোট, আজ প্রচারের ঝড় তুলবেন মমতা- শাহ-নাড্ডা