কৌশিক সেন, রায়গঞ্জ: রোগের ভয়ে পালিয়েছিলেন তিনি। কিন্তু তাই বলে কি নগদ টাকা হাতছাড়া করা যায়! রীতিমতো ফাঁদ পেতে এবার করোনা আক্রান্ত যুবককে খুঁজে বের করল প্রশাসন। তাঁকে ভর্তি করা হয়েছে কোভিড হাসপাতালে। ঘটনাটি ঘটেছে উত্তর দিনাজপুরের রায়গঞ্জে।

আরও পড়ুন: কলকাতায় ফের নতুন করে বাড়ল কনটেনমেন্ট জোন, জেনে নিন কোন কোন এলাকা

ঘটনার সূত্রপাত দিন তিনেক আগে। জ্বরের উপসর্গ নিয়ে রায়গঞ্জ মেডিক্যাল কলেজ ও হাসপাতালে ভর্তি হন ওই যুবক। করোনা নয় তো? রোগীর লালারস সংগ্রহ করে পরীক্ষার জন্য পাঠান চিকিৎসকরা। তখনও রিপোর্ট আসেনি। জ্বর কমে যাওয়ার রোগীকে ছেড়ে দেওয়া হয়। শুক্রবার যখন সোয়ার টেস্টের রিপোর্ট আসে, তখন জানা যায়, ওই যুবক করোনা আক্রান্ত। সেদিন বিকেলে স্বাস্থ্য দপ্তরের বিশেষ টিম সদস্যেরা চলে যান আক্রান্তের বাড়িতে। কিন্ত ততক্ষণে ওই যুবক পালিয়ে গিয়েছেন। তাহলে উপায়? এক অভিনব কৌশল নেন স্বাস্থ্য কর্মীরা।

আরও পড়ুন: রাতবিরেতে চলত মহিলাদের আনাগোনা, লকডাউন উঠতেই হাতেনাতে ধরা পড়ল মধুচক্র

জানা গিয়েছে, স্বাস্থ্য দপ্তরের এক কর্মীর ফোনে ওই যুবককে জানান, লালারস পরীক্ষার জন্য দু'হাজার টাকা সরকারি অনুদান এসেছে। কাগজে সই করে সেই টাকা সংগ্রহ করতে হবে। আর তাতেই কেল্লা ফতে! টাকা লোভে ওই যুবক নিজেই জানিয়ে দেন, তিনি রায়গঞ্জ শহরের বাসস্ট্যান্ড লাগোয়া এলাকায় রয়েছেন। এরপর করোনা রোগীকে কার্যত পাকড়াও করে কোভিড হাসপাতালে ভর্তি করেন স্বাস্থ্য দপ্তরের কর্মীরা।  রায়গঞ্জ বাস-মিনিবাস ওনার্স অ্যাসোসিয়েশনের সম্পাদক প্লাবন প্রামাণিক জানিয়েছেন, ওই যুবক দীর্ঘদিন ধরে বাসস্ট্যান্ডে গাড়ি ধোওয়ার কাজ করতেন।