Asianet News BanglaAsianet News Bangla

Khejuri Rape: 'গোয়া ছেড়ে নিজের রাজ্যের দিকে দেখুন', খেজুরিতে ধর্ষণের ঘটনায় মমতাকে কটাক্ষ অগ্নিমিত্রার

নাবালিকার পরিবারের সঙ্গে দেখা করতে শুক্রবার খেজুরিতে যান অগ্নিমিত্রা। পরিবারের সঙ্গে দেখা করার আগে তেঁতুলতলা থেকে একটি মিছিল বের করে মহিলা মোর্চা। তাতে অংশ নিয়েছিলেন অগ্নিমিত্রা। রামচকের পথে ওই মিছিলের উপর হামলা এবং বোমাবাজির অভিযোগ উঠেছে তৃণমূলের বিরুদ্ধে।

Agnimitra Paul slams Mamata on Khejuri Rape bmm
Author
Kolkata, First Published Nov 20, 2021, 4:46 PM IST
  • Facebook
  • Twitter
  • Whatsapp

খেজুরির বারাতলা গ্রামে এক নাবালিকাকে ধর্ষণের (Rape) অভিযোগ উঠেছে তৃণমূল কর্মী (TMC Worker) গোপাল মণ্ডলের বিরুদ্ধে। এরপর খেজুরি থানায় (Khejuri Police Station) অভিযোগ দায়ের করেন নাবালিকার বাবা। অসুস্থ অবস্থায় নাবালিকাকে ভর্তি করা হয় স্থানীয় জনকা হাসপাতালে। এই ঘটনায় শুক্রবার খেজুরিতে যান বিজেপি বিধায়ক অগ্নিমিত্রা পল (Agnimitra Paul)। যদিও নাবালিকার পরিবারের সঙ্গে তাঁকে দেখা করতে দেওয়া হয়নি। পরে অবস্থানে বসেন তাঁরা। সেখানে দাঁড়িয়েই রাজ্যে নারীদের সুরক্ষা নিয়ে ক্ষোভ উগরে দেন অগ্নিমিত্রা। মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে (Mamata Banerjee) কটাক্ষ করে তিনি বলেন, “মুখ্যমন্ত্রী মা লক্ষ্মী প্রকল্পে ৫০০ টাকা করে ভিক্ষা দিচ্ছেন। এদিকে তাঁর রাজ্যে ৯ বছরের শিশুকে ধর্ষণ করা হচ্ছে। আর অভিযুক্ত, যে কিনা শাসকদলের সমর্থক। যার বিরুদ্ধে আগেও ধর্ষণের অভিযোগ রয়েছে।”
 
স্থানীয় সূত্রে জানা গিয়েছে, মামার বাড়িতে বড় হওয়া ৯ ও ১০ বছর বয়সী দুই বোন শুক্রবার টিউশন পড়ে বাড়ি ফিরছিল। অভিযোগ, সেই সময় গ্রামের গোপাল মণ্ডল নামে ওই যুবক একজনকে ১০ টাকা ও আরেক জনকে ২০ টাকা দেওয়ার প্রলোভন দেখিয়ে নিজের সঙ্গে নিয়ে যাওয়ার চেষ্টা করে। তখন দুই বোনই গোপালের সঙ্গে চলে যায়। এরপর ফাঁকা জায়গায় নিয়ে গিয়ে গোপাল দুই বোনকে টানাটানি করতে শুরু করে। এমন অবস্থায় ভয় পেয়ে এক বোন দৌড়ে পালিয়ে গেলেও আরেক বোন পালাতে পারেনি। তাতে ধরে ফেলে গোপাল। এদিকে যে গোপালের খপ্পর থেকে পালাতে পেরেছিল সে বাড়িতে গিয়ে গোটা ঘটনার কথা খুলে বলে। তখনই তারা মামার বাড়ির লোকজন ওই জায়গায় পৌঁছায়। যদি তাঁরা পৌঁছানোর আগেই ওই নাবালিকাকে ধর্ষণ করে পালিয়ে যায় গোপাল। ঘটনার পরই গোপালের বিরুদ্ধে থানায় অবিযোগ দায়ের করেন নাবালিকার বাবা। অসুস্থ অবস্থায় উদ্ধার করে ওই নাবালিকাকেক ভর্তি করা হয় স্থানীয় জনকা হাসপাতালে।

আরও পড়ন- হাত বেঁধে নিয়ে কলকাতার রাস্তা দিয়ে ছুটছিল বাইক, পুলিশ ধরতেই কান্না ২ কিশোরীর

Agnimitra Paul slams Mamata on Khejuri Rape bmm

আরও পড়ুন- কৃষি আইন বাতিলে খুশি নন্দীগ্রামবাসী, 'নীরব' থাকলেন শুভেন্দু

এরপর নাবালিকার পরিবারের সঙ্গে দেখা করতে শুক্রবার খেজুরিতে যান অগ্নিমিত্রা। পরিবারের সঙ্গে দেখা করার আগে তেঁতুলতলা থেকে একটি মিছিল বের করে মহিলা মোর্চা। তাতে অংশ নিয়েছিলেন অগ্নিমিত্রা। রামচকের পথে ওই মিছিলের উপর হামলা এবং বোমাবাজির অভিযোগ উঠেছে তৃণমূলের বিরুদ্ধে। যদিও তা খারিজ করে দিয়েছে স্থানীয় তৃণমূল নেতৃত্ব। পুলিশের তৎপরতার কারণে অবশ্য তেমন বিশৃঙ্খলা তৈরি হয়নি। রামচকে গিয়ে আবার নির্যাতিতার পরিবারের সঙ্গে দেখা করার জন্য দীর্ঘক্ষণ অপেক্ষা করতে হয় বিজেপির নেতানেত্রীদের। ওই এলাকায় অবস্থানেও বসেন তাঁরা। এই বিষয়ে অগ্নিমিত্রা বলেন, “আমাদের সঙ্গে যাতে দেখা না হয়, তার জন্য নির্যাতিতার পরিবারকে গোপন জায়গায় রাখা হয়েছিল। কিন্তু আমরা অপেক্ষা করছিলাম।” অবশেষে সন্ধে নাগাদ নির্যাতিতার পরিবারের সদস্যদের সঙ্গে দেখা করে কথা বলে ফিরে যান তাঁরা। খেজুরির ধর্ষণ নিয়ে সিবিআইকে চিঠি লেখার কথা জানিয়েছেন অগ্নিমিত্রা। তাঁর দাবি, ২ মে যে সন্ত্রাস হয়েছে, এটাও সেই সন্ত্রাসের মধ্যে পড়ে। গোয়া গিয়ে সেখানকার নারী সুরক্ষা নিয়ে প্রশ্ন তুলেছিলেন রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। এ প্রসঙ্গে অগ্নিমিত্রা বলেন, "নিজের রাজ্যের দিকে একটু দেখুন। প্রতিদিনই রাজ্যের কোথাও না কোথাও মহিলারা নির্যাতিত হচ্ছেন। ধর্ষণ, শ্লীলতাহানির শিকার হচ্ছেন। কিন্তু কোনও বিচার হচ্ছে না। শাস্তি হচ্ছে না খুনি, ধর্ষকের।"

আরও পড়ুন- টেবিলে গোছানো রয়েছে ব্যাগ, ব্যাঙ্গালুরু যাওয়ার আগে উদ্ধার মেডিক্যাল পড়ুয়ার দেহ

Follow Us:
Download App:
  • android
  • ios