বিজেপির উত্তরকন্যা অভিযান ঘিরে রণক্ষেত্রের চেহারা নিয়েছিল উত্তরবঙ্গের বিস্তীর্ণ এলাকা। তার তানি নিয়ে বিজেপির আইটি সেলের প্রধান অমিত মালব্য আরও একবার নিশানা করেন রাজ্যের মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের সরকারকে। সোশ্যাল মিডিয়ায় বার্তা দিয়ে মালব্য বলেন, রাজ্যের পুলিশ তৃণমূল আশ্রিত দুষ্কৃতীদের মতই কাজ করছে।  মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের নাম না করে তিনি আরও একবার পিসি বলে কটাক্ষ করেন। তিনি বলেন, এটা কী সংযম। কিন্তু যদি লাঠিচার্জ করেও প্রতিহত করা না যায় তাহলে পরবর্তী কী পন্থা অবলম্বন করা হবে- তাও জানতে চেয়েছেন তিনি। একই সঙ্গে তিনি বলেন মুখ্যমন্ত্রী হিসেবে ক্ষমতার অপব্যবহার করছেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। তেমনও অভিযোগ করেন অমিত মালব্য।


পশ্চিমবঙ্গে সহকারী পর্যবেক্ষকের দায়িত্ব দেওয়া হয়েছে আইটি সেলের প্রধান অমিত মালব্যকে। আর তারপর থেকে রাজ্যে মমতা বিরোধী আন্দোলনকে অন্যমাত্রায় নিয়ে তিনি নিয়ে যাওয়ার চেষ্টা করছেন বলেও দাবি করছে বিজেপির একটি অংশ। মাঠে নেমে আন্দোলনের পাশাপাশি সোশ্যাল মিডিয়াতেও গেরুয়া শিবির ক্রমশই সুর চড়াচ্ছে তৃণমূলের বিরুদ্ধে। আর  আক্রমণের প্রথম সারিতেই রয়েছে বিজেপির কথায় পিসি ও ভাইপো। মমতা বন্দ্যোপাধ্য়ায় ও তাঁর ভাইপো অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়কে এই ভাষাতেই আক্রমণ করছে বিজেপি। 

মহামারির সঙ্গে লড়াইয়ে মোবাইল ফোন গুরুত্বপূর্ণ, IMC 2020-তে বললেন নরেন্দ্র মোদী ...

করোনা-টিকা 'কোভিশিল্ড' খুব তাড়াতাড়ি আসতে পারে ভারতের বাজারে, জেনে নিন প্রতিষেধকের দাম ...

গতকাল বিজেপির উত্তরকন্যা অভিযানে গুলিবিদ্ধ হয়ে এক বিজেপি কর্মীর মৃত্যু হয়ে। তা নিয়েও তৃণমূল কংগ্রেস ও বিজেপি তরজায় জড়িয়ে পড়ে। বিজেপির পক্ষ থেকে দাবি করা হয় রাজ্য পুলিশের গুলিতেই উলেন রায়ের মৃত্যু হয়েছে। যদিও মঙ্গলবার রাজ্য পুলিশের পক্ষ থেকে জানান হয়েছে উলেন রায়ের শরীর থেকে উদ্ধার করা গুলি শর্টগানের। পুলিশের পক্ষ থেকে বলা হয়েছে শর্টগানের আঘাতেই মৃত্যু হয়েছে উলেন রায়ের। আর পুলিশ শর্ট গান ব্যবহার করে না বলেও জানিয়ে দেওয়া হয়েছে। রাজ্য পুলিশের একটি সূত্র দাবি করেছে যে গতকাল উত্তরকন্যা অভিযানের সময় কিছু সশস্ত্র মানুষ জড়ো হয়েছিল। যা নজিরবিহীন ঘটনা বলেও দাবি করা হয়েছে। কিন্তু পুলিশের এই দাবি উড়িয়ে দিয়েছে বিজেপি।