আশিস মণ্ডল, বীরভূম-বিধানসভা ভোটের প্রাক্কালে দিলীপ ঘোষকে তীব্র আক্রমণ করলেন অনুব্রত মণ্ডল। তাঁকে ভাইরাস বলে কটাক্ষ করে স্যানিটাইজ করার পর তৃণমূলের বুথ কমিটিতে যোগ দেওয়ার আহ্বান জানালেন অনুব্রত। পাশাপাশি, তাঁকে দলে নেওয়ার আগে পুকুরে চুবিয়ে নিতে হবে বলেও মন্তব্য করেন অনুব্রত। পাশাপাশি, কেন্দ্রীয় সরকারের নীতির তীব্র বিরোধিতা করলেন তিনি।

আরও পড়ুন-থানা লকআপে নাবালকের অস্বাভাবিক মৃত্যুর জের, দুই অফিসারকে শোকজ করল জেলা পুলিশ

বীরভূমের ইলামবাজারের বুথ কর্মী সম্মেলনের পর সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের উত্তরে বিজেপির রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষকে তৃণমূলের বুথ কমিটিতে যোগদানের আহ্বান জানান অনুব্রত। এর আগে অবশ্য,বিজেপির রাজ্য সভাপতি নাম না করে অনুব্রত মণ্ডলকে দলে যোগদান করার প্রস্তাব দেন। তিনি বলেন, ''দিলীপ ঘোষের থেকে বড় ভাইরাস গোটা রাজ্যে আর কে আছে? তাই তাঁকে দলে নিতে হলে আগে স্যানিটাইজড করে, পুকুরে চুবিয়ে নিতে হবে।  ওঁদের আবার গোবর মাখা অভ্যেস''। এছাড়াও, কেন্দ্র সরকারকে কটাক্ষ করে তিনি বলেন, ''আজ দেশের জিডিপির হার প্রতিবেশী দেশ নেপাল, ভুটান, বাংলাদেশ ও শ্রীলঙ্কা থেকেও কম। এই সরকার বলেছিল বছরে এক কোটি বেকারকে চাকরি দেবে, তা দেয়নি। নরেন্দ্র মোদী এক অপদার্থ প্রধানমন্ত্রী''।  

আরও পড়ুন-কত টাকা মাইনে নেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্য়ায়, বিধানসভা নির্বাচনের প্রাক্কালে জানুন সেকথা

ইলামবাজারের রাইসমিলের মাঠে বুথ কর্মীদের সম্মেলন ছিল শাসকদলের নেতারা। যদিও, এদিন সাংবাদিকদের প্রবেশাধিকার ছিল না। সেখানে জেলা তৃণমূল সভাপতি অনুব্রত মণ্ডল ছাড়াও উপস্থিত ছিলেন বোলপুরের সাংসদ অসিত মাল, জেলা সহ সভাপতি অভিজিৎ সিনহা, মৎস মন্ত্রী চন্দ্রনাথ সিনহা প্রমুখ।বিধানসভা নির্বাচনের আগে বুথ ভিত্তিক সম্মেলনের উপর বেশি জোর দিয়েছেন শাসকদল। ইলামবাজার ব্লকের বাতিকার, মঙ্গলডিহি, ঘুরিষা এবং ধরমপুর মোট এই চারটি অঞ্চলের বুথ কমিটি নিয়ে হয়েছিল তৃণমূলের এই সম্মেলন।