Asianet News Bangla

'ভীষণ খুশী', ভিন রাজ্যের হারিয়ে যাওয়া শিশুকে পরিবারের কাছে ফিরিয়ে দিল হ্যাম রেডিও

 চলতি বছরের জুন মাসের ২ তারিখ বিহারের পাটনার বাসিন্দা ১০ বছরের মুখবধির শিশু নিরজ কুমার ঘর ছেড়ে বেরিয়ে আসে। ভিন রাজ্যের হারিয়ে যাওয়া মুক- বধির শিশুকে হ্যাম রেডিওর সহায়তায় ফিরে পেল পরিবার।
 

Bihars family has found their lost son at the initiative of the Ham Radio RTB
Author
Kolkata, First Published Jul 19, 2021, 5:37 PM IST
  • Facebook
  • Twitter
  • Whatsapp

ভিন রাজ্যের হারিয়ে যাওয়া মুক বধির শিশুকে হ্যাম রেডিওর সহায়তায় ফিরে পেল পরিবার। ছেলেকে ফিরিয়ে নিতে এসে হয়রানির শিকার হয়েও অবশেষে বারাসাত কিশলয় হোম থেকে ছেলেকে নিয়ে গেল পরিবার।

আরও পড়ুন, ভবানীপুরের টিকাকেন্দ্রে হঠাৎ হাজির মমতা, ভ্যাকসিন গ্রাহকদের সঙ্গে কথাও বললেন মুখ্যমন্ত্রী

 


 চলতি বছরের জুন মাসের ২ তারিখ বিহারের পাটনার বাসিন্দা ১০ বছরের মুক-বধির শিশু নিরজ কুমার ঘর ছেড়ে বেরিয়ে আসে। পরিবারের লোকজন অনেক খোঁজাখুঁজির পর স্থানীয় থানায় অভিযোগ দায়ের করে। পরবর্তীতে হ্যাম রেডিও সংস্থা মুখবধির শিশুটির খোঁজ খবর পায় হিঙ্গলগঞ্জ এর স্থানীয় সূত্রে। এরপর হিঙ্গলগঞ্জ থানার পক্ষ থেকে শিশুটির পাটনার স্থানীয় থানায় যোগাযোগ করা হয় পরিবারের সঙ্গে। এরপর তড়িঘড়ি পাটনা থেকে পরিবারের লোকজন শিশুটিকে ফিরিয়ে নিতে হিঙ্গলগঞ্জ থানায় গেলে তাঁদের জানানো হয় লোকাল পঞ্চায়েত স্তরে উপযুক্ত প্রমান নথি পত্র নিয়ে ইমেইল মারফত জেলা বারাসাত কিশলয় হোমের সঙ্গে যোগাযোগ করতে। পরিবারের লোকজন পাটনায় ফিরে যায় এবং উপযুক্ত প্রমান সহকারে ইমেইল মারফত বারাসাত কিশালয় হোম কর্তৃপক্ষকে বিষয়টি জানায়। সোমবার সেইমতো শিশুটির পরিবার সকাল ছটার সময় হাজির হয় বারাসাত কিশলয় হোমে। দীর্ঘ ৯ ঘন্টা পর অবশেষে শিশুটিকে ফিরে পেল অসহায় বাবা। সোমবার দুপুর ৩ তে নাগাদ বারাসাত কিশালয় হোম কর্তৃপক্ষের পক্ষ থেকে শিশুটিকে তুলে দেওয়া হয় পরিবার হাতে। দীর্ঘ প্রতীক্ষার অবশেষে ঘরের ছেলেকে ফিরে পেয়ে খুশি মুক-বধির শিশুর পিতা।

 

 

আরও পড়ুন, লকডাউনে নেই পর্যটক, রায়গঞ্জের পক্ষীনিবাসে গান ধরেছে ১৬৪ প্রজাতির পরিযায়ী পাখিরা

উল্লেখ্য, এর আগেও ৩৯ বছর পর ছোটবেলার দুই বন্ধুকে মিলিয়েছিল হ্যাম রেডিও। ব্যারাকপুরের নোনা চন্দন পুকুরের বাসিন্দা মিসেস চন্দনা মিত্র (বোস) এর থেকে অনুরোধ আসে,  তাঁর শৈশবের বন্ধু সাবিতা রায়কে খুঁজে বের করে দেওয়ার জন্য। এমনটাই কথোপকথন হয়, ত্রিপুরার এইচএএম রেডিও ক্লাব এবং পশ্চিমবঙ্গ রেডিও ক্লাবে। এরপরেই খবর আসে,'আমরা তার বন্ধু উদয়পুর, জেলা গোমতী, জগন্নাথ দিঘি, পশ্চিম পাশে পেয়েছি। মিসেস সাবিত্রা এখন ত্রিপুরা সরকারের পল্লী উন্নয়ন বিভাগের একান্ত সচিব হিসাবে কর্মরত আছেন। আমরা ৩৯ বছর পরে দু'জন শৈশব বন্ধুকে পুনরায় একত্রিত করতে পেরে খুশি।'

আরও পড়ুন, ভাইরাসের ভয় নেই তেমন এখানে, ঘুরে আসুন ভুটানে  

আরও পড়ুন, রাজ্য়ের সর্বনিম্ন সংক্রমণ এই জেলায়, বৃষ্টিতে হারাতেই পারেন পুরুলিয়ার পাহাড়ে

আরও দেখুন, মাছ ধরতে ভালবাসেন, বেরিয়ে পড়ুন কলকাতার কাছেই এই ঠিকানায়  

আরও দেখুন, বৃষ্টিতে বিরিয়ানি থেকে তন্দুরি, রইল কলকাতার সেরা খাবারের ঠিকানার হদিশ  

আরও দেখুন, কলকাতার কাছেই সেরা ৫ ঘুরতে যাওয়ার জায়গা, থাকল ছবি সহ ঠিকানা 

আরও পড়ুন, বনগাঁ লোকাল নয়, জাপানে ঠেলা মেরে ট্রেনে তোলে প্রোফেশনাল পুশার, রইল পৃথিবীর আজব কাজের হদিস 

 

Follow Us:
Download App:
  • android
  • ios