Asianet News BanglaAsianet News Bangla

অপহরণ করে মুক্তিপণ চেয়ে দুই ছাত্রকে খুন? পুলিশের ভূমিকায় উঠছে একাধিক প্রশ্ন

বাগুইআটি থেকে নিখোঁজ হওয়া দুই ছাত্রের নিথর দেহ উদ্ধার হল উত্তর ২৪ পরগনার বনগাঁ থেকে। প্রাথমিকভাবে পুলিশের অনুমান অপহরণ করে দুই ছাত্রকে হত্যা করা হয়েছে। গত ২২ অগাস্ট থেকে নিখোঁজ ছিল তারা।

bodies of two kidnapped students of Baguiati were recovered in Basirhat bsm
Author
First Published Sep 6, 2022, 4:48 PM IST

বাগুইআটি থেকে নিখোঁজ হওয়া দুই ছাত্রের নিথর দেহ উদ্ধার হল উত্তর ২৪ পরগনার বনগাঁ থেকে। প্রাথমিকভাবে পুলিশের অনুমান অপহরণ করে দুই ছাত্রকে হত্যা করা হয়েছে। গত ২২ অগাস্ট থেকে নিখোঁজ ছিল তারা। নিখোঁজ হওয়ার অভিযোগও দায়ের করা হয়েছিল। এই ঘটনায় নিহত দুই ছাত্রের পরিবার পুলিশের দিকে অভিযোগের আঙুল তুলেছে। যদিও এখনও পর্যন্ত মোট চারজনকে আটক করা হয়েছে। বাকিদের খোঁজে তল্লাশি চালাচ্ছে পুলিশ। তবে মূল চক্রী এখনও বেপাত্তা। 


পুলিশ জানিয়েছে দুই কিশোরের মধ্যে একজনের বয়স ১৫ অন্যজনের বয়স ১৬। উত্তর ২৪ পরগনার বাগুইআটি থানার অর্জুনপুর শিবতলার দশম শ্রেণীর ছাত্র অভিষেক নস্কর, তার মামাতো ভাই অতনু দে ,সেও দশম শ্রেণীর ছাত্র। বাগুইআটি চিত্তরঞ্জন কলোনি হিন্দু বিদ্যাপীঠের ছাত্র। ২২ আগস্ট এলাকার এক ব্যক্তির সঙ্গে বাইক কেনার নাম করে বাড়ি থেকে বের হয়। তার আর খোঁজ পাওয়া যায় না এরপর অভিষেকের বাবা অর্জুন নস্কর বাগুইহাটি থানায় নিখোঁজ এর অভিযোগ দায়ের করেন। পরেরদিন ২৩,শে আগস্ট নেজাট থানার বাসন্তী হাইওয়ে রাজবাড়ী মিনাখাঁর মেছো ঘেরিএই দুই ছাত্রের মৃতদেহ উদ্ধার। এলাকায় মেছোঘেরি পাশ থেকে অজ্ঞত পরিচয় এক যুবকের মৃতদে উদ্ধার হয়। তার খোঁজ পাওয়া যাচ্ছিল না। সেই মৃতদেহ উদ্ধার করে নেজাট থানার পুলিশ ময়নাতদন্তের জন্য বসিরহাটে জেলা হাসপাতালে পাঠান। সেই মৃতদেহ সনাক্ত করতে কেউ পাচ্ছিল না। এই নিয়ে বিভিন্ন থানায় এলাকায় ওই যুবকের ছবি পোস্ট করে তার নামও পরিচয় জানার চেষ্টা করছিল পুলিশ। মঙ্গলবার ওই যুবকের বাবা অর্জুন নস্কর বসিরহাট জেলা হাসপাতালের পুলিশ মর্গে  এসে ওই যুবকের মৃতদেহ সনাক্ত করে জানা যায় তার নিখোঁজ ছেলের অভিষেকের মৃতদেহ। 

অন্যদিকে অপর ছাত্র অতনু দে-র বাবা বিশ্বনাথ ২৪ আগস্ট বাগুইআটি থানায় অপহরণের অভিযোগ করেন। তাঁর দাবি বিশ্বনাথ দে'র ফোনে এক কোটি টাকা মুক্তিপন চেয়ে ম্যাসেজ আসতে থাকে। পরিবারের দাবি, পুলিশকে অভিযোগ জানানোর পর এবং এক কোটি মুক্তিপন চাওয়ার কথা জানানোর পরও পুলিশ যথাযথ ব্যবস্থা নেয়নি। পুলিশ ব্যবস্থা নিলে দুই ছাত্রকে জীবিত পাওয়া যেত। এভাবে মাধ্যমিক পরীক্ষার্থী দুই ছাত্রের মৃত্যুর খবর মিলত না। 

এদিকে সত্যেন্দ্র চৌধুরীর জগৎপুরে বাড়িতে ভাঙচুর চালায় অতনুর পরিবার ও প্রতিবেশিরা। ঘটনাস্থলে যায় বাগুইআটি থানার পুলিশ। প্রাথমিক তদন্তে পুলিশের অনুমান মুক্তিপণের লোভেই অপরহণ করা হয়েছিল। কিন্তু মুক্তিপণের টাকা রফা না হওয়ার জন্যই দুই কিশোরকে খুন করা হয়েছে। অভিযুক্ত সত্যেন্দ্রের খোঁজে তল্লাশি চলছে। অন্যদিকে বসিরহাট পুলিশ জানিয়েছে ২৩ ও ২৫ অগাস্ট ন্যাজাট ও মিনাখাঁ এলাকায় দুটি অজ্ঞাতপরিচয় দেহ উদ্ধার হয়। তারা সেটা বাগুইআটি পুলিশকে জানিয়েছিলেন। এতদিন পরে দেহদুটি সনাক্ত হয়। এই বিষয় বিস্তারিত তথ্য বাগুইআটি থানার পুলিশ দিতে পারবে বলেও জানিয়েছেন বসিরহাট থানার পুলিশ। 

'ভগবানও ১০০ শতাংশ নিয়ন্ত্রণ করতে পারে না', শিক্ষক দিবসের অনুষ্ঠানে বিরোধীদের তোপ মমতার

'আমাদের সকলকে জেলে ঢোকালেও বাংলার মানুষ মমতার সঙ্গে থাকবেন', বীজপুরের বিধায়কের পাশে দাঁড়িয়ে বললেন মন্ত্রী

কথা রাখলেন হাসিনা, সীমান্ত পেরিয়ে ৪ টন ইলিশ এল রাজ্যে- পুজোর মুখে আরও ইলিশ আসবে

Follow Us:
Download App:
  • android
  • ios